এবার আসছে মানুষের চোখের ক্ষমতার সমান ৫৭৬ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রযুক্তি পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্যামসাংয়ের এবার লক্ষ্য মানুষের চোখের ক্ষমতার সমান পিক্সেলের ক্যামেরা নিয়ে আসার। এ লক্ষ্য পূরণে এবার ৫৭৬ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা নিয়ে আসার লক্ষ্যে কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি। বিশ্বের প্রথম কোম্পানি হিসেবে স্মার্টফোনে ১০৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা এনেছিল স্যামসাং।

এরপর সেই ধারাবাহিকতায় বিশ্বের প্রথম ২০০ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা সেন্সরও উন্মোচন করে প্রতিষ্ঠানটি। গত সপ্তাহে স্যামসাং আইসোসেল এইচপিএল নামে ২০০ মেগাপিক্সেলের সেন্সরের ঘোষণা দিয়েছে। কিন্তু এতেও ক্ষান্ত না প্রতিষ্ঠানটি। এবার ৫৭৬ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা নিয়ে আসার লক্ষ্যে কাজ করছে এই প্রযুক্তি জায়ান্ট।

মোবাইল হ্যান্ডসেটে ১ দশমিক ৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা দিয়ে শুরু হয় পথ চলা। যা পর্যায়ক্রমে ২, ৮, ১২, ৪৮, ৬৪ এমনকি ১০৮ মেগাপিক্সেলকে পার করে এখন এমনকি ২০০ মেগাপিক্সেলের দ্বারপ্রান্তে মোবাইল ক্যামেরার জগত।

সম্প্রতি এসইএমআই ইউরোপ সম্মেলনে এক প্রেজেন্টেশনে স্যামসাং ইলেকট্রনিকসের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট হ্যায়চেং লি জানান, ২০২৫ সালের মধ্যে ৫৭৬ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা সেন্সরের পরিকল্পনা আমাদের।

তবে এই ক্যামেরা সেন্সরটি স্মার্টফোনে নয়, ড্রোন ও মেডিকেল যন্ত্রাংশে এবং গাড়িতে ব্যবহার অগ্রাধিকার দেওয়া হবে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

গত বছরই ৬০০ মেগাপিক্সেলের সেন্সর আনার পরিকল্পনা ঘোষণা করেছিল স্যামসাং। গত বছর স্যামসাংয়ের নির্বাহী ভাইস প্রেসিডেন্ট ইওনগিন পার্ক সেই উচ্চাভিলাষী পরিকল্পনা ঘোষণা করে বলেন, আমরা ৫০০ মেগাপিক্সেল ছাড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছি, যা হবে মানুষের চোখের সমান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *