পবিত্র শব্দের নাম ‘মাঃ না বলে বেড়াতে যাওয়ায় মেয়েকে মে’রে ঝুলিয়ে রাখলেন মা।

এই সুন্দর পৃথিবীতে সবচেয়ে শ্রুতিমধুর ও পবিত্র শব্দের নাম ‘মা’। এক অক্ষরের একটি ছোট্ট শব্দ ‘মা’। সন্তানের সাথে যার নাড়ির সম্পর্ক। হৃদয়স্পর্শী এ শব্দের সঙ্গে অন্য কোন শব্দের তুলনা হয় না। মা শব্দটি দিয়েই প্রত্যেক শিশুর জীবন আরম্ভ হয়। মানব শিশু মায়ের কারণেই সুশীতল ধ’রাতলের সুন্দর মুখখানি দেখতে পায়।

নতুন খবর হচ্ছে, দিনাজপুরের হিলিতে মনিষা খাতুন (৯) নামে এক শিশুকে হ’ত্যার অ’ভিযোগে মা রোজিনা খাতুনকে (২৭) আ’দালতের মাধ্যমে কারা’গারে পাঠিয়েছে পুলিশ। শুক্রবার (৬ আগস্ট) সকালে শিশুটিকে তার মা মা’রধর করেন। সন্ধ্যায় দিনাজপুরের এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মা’রা যায়।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানায়, শিশু মনিষা খাতুন তার মাকে না বলে বোনের বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিল। এদিকে তার মা তাকে খুঁজে পাচ্ছিলেন না। পরে সে ফিরে আসলে মা রোজিনা খাতুন তাকে মা’রধর করেন। একপর্যায়ে মনিষা গু’রুতর আ’হত হয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। পরে নিজেকে বাঁচাতে মেয়ের মর’দে’হ ঝুলিয়ে ঘরে ঝুলিয়ে রাখেন। স্থানীয়রা বি’ষয়টি জানতে পেরে মনিষাকে উ’দ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

কবিরাজ: তপন দেব,সাধনা ঔষধালয় । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- আমাদের এখানে নারী ও পুরুষের সকল #যৌন_রোগ সহ জটিল ও কঠিন রোগের সু চিকিৎসা করা হয়।
বিঃ দ্রঃ আমাদের এখান থেকে দেশে ও বিদেশে কুরিয়ার করে ঔষধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০

সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে দিনাজপুরের এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যায় সে মা’রা যায়।নি’হত মনিষার বাবা মহসীন আলী বলেন, আমা’র স্ত্রী মেয়ে মনিষাকে মা’রধর করে মৃ’ত ভেবে র’শিতে ঝুলিয়ে রেখেছিলেন। আমি মেয়ে হ’ত্যার বিচার চাই।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *