এবার মডেল ‘মৌ’ আটকের সংবাদ দেখে ঘাবড়ে গিয়েছিলেন শাহনাজ খুশি

উচ্চবিত্ত পরিবারের সন্তানদের পার্টির নামে বাসায় ডেকে আপ’ত্তিকর ভিডিও ধারণ করে ব্ল্যা’কমেইল ও মা’দক সেবনের অ’ভিযোগে মডেল মর’িয়ম আক্তার মৌকে আট’ক করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। আলোচিত এই মডেলের কর্মকাণ্ড নিয়ে রোববার রাত থেকেই গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হচ্ছে। সেসব সংবাদ দেখে প্রথমে ঘাবড়ে গিয়েছিলেন ছোটপর্দার সুপরিচিত অ’ভিনেত্রী শাহনাজ খুশি।

এ নিয়ে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে দীর্ঘ স্ট্যাটাস দিয়েছেন খুশি। তার বক্তব্য, কোনো বিজ্ঞাপনচিত্রে নিজেকে দেখাতে পারলেই সে মডেল বা অ’ভিনেত্রী হয়ে যায় না। ইদানীং অনেক সুদর্শিনীকে দেখা মেলে যারা প্রকৃতপক্ষে অ’ভিনয়শিল্পীর কাতারে পড়েন না। তারা তাদের সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলে মডেল-অ’ভিনেত্রী লিখে দেয়।

এই ধরনের তথাকথিত মডেল-অ’ভিনেত্রীর ব্যক্তিগত উশৃঙ্খলাতাকে প্রচার করার পক্ষে নন এই জনপ্রিয় অ’ভিনেত্রী। সোমবার অ’ভিনেত্রী শাহনাজ খুশি ফেসবুকে লেখেন, ‘আজ সকালে মডেল ‘মৌ’ দেখে রীতিমতো ঘাবড়ে গেলাম! কারণ মডেল মৌ বলতে সারা দেশের মানুষ সাদিয়া ইসলাম মৌকেই জানে। অ’ভিনেত্রী থা’নায়, দেখে কুণ্ঠিত হয়ে যায়!

বার বার একই হেডিংয়ে বিব্রত ‘হতে হয়, অ’ভিনয় এবং মডেলিং পেশায় থাকা মানুষের পরিবারগু’লোকে! কারো ব্যক্তিগত উশৃঙ্খলাতাকে এত প্রচার করারই বা কি আছে? তাও কিনা যখন দেশে প্রতিদিন গড়ে ২৩০ থেকে ২৪০ জন মানুষ মা’রা যাচ্ছে! অ্যাম্বুলেন্সগু’লোর বিরামহীন লা’শ এবং রোগী টানার সাইরেনে কাতর হচ্ছে সমগ্র সারা শহর, গ্রাম!’

খুশির মতে, ‘ডেংগু’সহ চিকিৎসা ব্যবস্থার নানা সীমাব’দ্ধতা নিয়ে দিশেহারা সারাদেশের মানুষ! প্রিয়জন হারিয়ে শান্ত্বনার জায়গা নাই কারো! মৃ’ত্যু এখন সংখ্যা শুধু! সেখানে প্রহসনের এই নিউজগু’লো ফলাও করবার কি এত প্রয়োজন আছে? ব্যক্তিগতভাবে আমা’র বেশি খারাপ লাগে এটা ভেবে যে।

কবিরাজ: তপন দেব,সাধনা ঔষধালয় । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- আমাদের এখানে নারী ও পুরুষের সকল #যৌন_রোগ সহ জটিল ও কঠিন রোগের সু চিকিৎসা করা হয়।
বিঃ দ্রঃ আমাদের এখান থেকে দেশে ও বিদেশে কুরিয়ার করে ঔষধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০

ইন্টানেটের কারণে সারা দুনিয়া জানছে এ কথা। সে হোক কোন ক্রিকেটার, মডেল, অ’ভিনেত্রী, ব্যাংকার অথবা গৃহবধূ! সব তো এই ছোট, অ’সুস্থ দেশটার ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র অংশ।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *