তবে ব্যবহারের পর ফেলে দেয়া মাস্ক দিয়ে তৈরি হলো সুদৃশ্য গাউন

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস থেকে বাাঁচতে সকলকে মাস্ক পড়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে ব্যবহারের পর অনেকেই সেই মাস্ক ফেলে দিচ্ছেন যত্রতত্র। যার ফলে ঘটছে ব্যাপক পরিবেশ দূষণ।

সম্প্রতি ফেলে দেয়া এসব মাস্ক দিয়ে বিয়ের গাউন তৈরি করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন এক ব্রিটিশ ডিজাইনার। তবে তার উদ্দেশ্য শুধু পোশাক তৈরি নয়। এর মাধ্যমে আমজনতাকে বিশেষ বার্তা দিতে চেয়েছেন তিনি।

জানা গেছে, ওই ডিজাইনারের নাম টম সিলভারউড। একটি বিয়ের নানারকম কাজের ওয়েবসাইট ‘হিচড’-এর সহযোগিতায় বিশেষ এ গাউনটি তৈরি করেছেন তিনি। যাতে ব্যবহার করা হয়েছে এক হাজার ৫০০টি মাস্ক। মডেল জেমিমা হেমব্রো ওই গাউনটি পড়ে ফটোশুট করেছেন লন্ডনের সেন্ট পলস ক্যাথিড্রালের সামনে। যা সবার নজর কেড়েছে।

এ বিষয়ে হিচডের তরফে সারা অ্যালার্ড বলেন, ধীরে ধীরে আমরা স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছি। বিধিনিষেধ ছাড়াই এবার বিয়ের অনুষ্ঠানে মাততে পারব আমরা। তার কথায়, করোনা পরিস্থিতিতে প্রচুর মাস্ক নষ্ট হয়েছে। যা কখনই কাম্য নয়। তিনি বলেন, শুধু মাত্র প্রতীক হিসেবেই যে মাস্কে গাউন তৈরির সিদ্ধান্ত, তেমনটা নয়।

বাতিল মাস্ক যে ভালো কাজে ব্যবহার করা যায়, এটা থেকে তা স্পষ্ট। এদিকে মহামারি করোনা ভাইরাসের নতুন নতুন ভ্যারিয়েন্টের কাছে বিশ্বের ক্ষমতাধর রাষ্ট্রগুলোও ধরাশায়ী। এখন পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ছাড়িয়েছে ৪১ লাখ ৪২ হাজার। আর আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১৯ কোটি ২৮ লাখ।

বিশ্বব্যাপী ফের ঊর্ধ্বমুখী করোনায় মৃত্যু-আক্রান্ত। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়েছে। এ সময় মারা গেছেন আরও ৮ হাজার ৫৩৯ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৫৩ হাজার ৭১১ জন।

এর আগে গতকাল বুধবার (২১ জুলাই) মারা যান আরও ৮ হাজার ২৬৭ জন এবং আক্রান্ত হন ৫ লাখ ১০ হাজার ১০৮ জন।
এ নিয়ে বিশ্বে এখন পর্যন্ত মোট করোনায় মৃত্যু হলো ৪১ লাখ ৪২ হাজার ৪৭২ এবং আক্রান্ত হয়েছেন ১৯ কোটি ২৮ লাখ ২৫ হাজার ৯৮২ জন।

এদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৭ কোটি ৫৩ লাখ ৪৩ হাজার ১৯৯ জন। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *