সরকারের হিসাব অনুযায়ীঃ ভারতে করোনায় মৃত্যু ১০ গুণের বেশি: গবেষণা!

ভারত সরকারের হিসাব অনুযায়ী তাদের দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রায় সোয়া চার লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু দেশটিতে প্রকৃত মৃতের সংখ্যা এর চেয়ে ১০ গুণ বেশি বলে উঠে এসেছে এক গবেষণায়। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক গবেষণা সংস্থাটির বরাতে মঙ্গলবার এ বিষয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

ভারতে প্রথম শনাক্ত হওয়া করোনার ডেল্টা ধরন চলতি বছরের এপ্রিল ও মে মাসে ব্যাপক হারে ছড়িয়ে পড়ে। এতে দেশটিতে করোনায় মৃত্যুহারেও উল্লম্ফন হয়। গত বছর ও চলতি বছরে মহামারির আঘাতে ভারতের কত মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে, এ নিয়ে গবেষণা করে সেন্টার ফর গ্লোবাল ডেভেলপমেন্ট।

গবেষণায় দেখা যায়, দক্ষিণ এশিয়ার ১৩০ কোটি জনসংখ্যার দেশ ভারতে এখন পর্যন্ত করোনায় সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা গেছে।
করোনা মহামারি শুরু থেকে চলতি বছরের জুন পর্যন্ত তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, ৩৪ থেকে ৪৭ লাখের মতো ভারতীয় ভাইরাসটিতে প্রাণ হারায়।

গবেষকদের ভাষ্য, ‘করোনায় ভারতে লাখ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এ সংখ্যা কোনোভাবেই কয়েক লাখের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়।
মহামারির কারণে বাড়তি মৃত্যুর তালিকায় কারা থাকছেন এই হিসাব করতে গবেষকেরা তিনটি সূত্রের তথ্য ব্যবহার করেছেন। গত ২১ জুন পর্যন্ত এসব তথ্য নেয়া হয়েছে।

এসব তথ্য সূত্রের একটি হলো, ভারতে বার্ষিক মৃত্যুর হিসাব। ২০১৯ সাল পর্যন্ত এসব তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। এ থেকে সাতটি রাজ্যের তথ্য নেয়া হয়েছে। এই সাতটি রাজ্যের জনসংখ্যা ভারতের মোট জনসংখ্যার অর্ধেকের সমান। ফলে সাত রাজ্যের হিসাব থেকে একটি পূর্বানুমান করা হয়েছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ক্ষেত্রে বয়সভিত্তিক তথ্য, করোনায় মারা যাওয়া মানুষের সংখ্যা সংগ্রহ করেছেন গবেষকেরা। এ ছাড়া সেরোলজিক্যাল সার্ভে পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়েছে করোনায় মৃত্যুর একটি সার্বিক চিত্র তুলে ধরতে।

এ ছাড়া আরেকটি ভোক্তা জরিপ চালানো হয়েছে। এই জরিপে অংশ নিয়েছেন ৮ লাখ ৬৮ হাজার ব্যক্তি। ১ লাখ ৭৭ বাড়িতে গিয়ে সেই জরিপ চালানো হয়েছে। এতে জরিপের অন্যতম প্রশ্ন ছিল, বিগত চার মাসের মধ্যে তাদের পরিবারের কেউ মারা গিয়েছেন কি না।

এই তিন সূত্র থেকে পাওয়া সব তথ্য এক করে গবেষকেরা এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন যে, ভারতে সরকারি হিসাবের বাইরে মৃতের সংখ্যা ৩৪ থেকে ৪৭ লাখের মধ্যে। যা সরকারি হিসাবের তুলনায় প্রায় ১০ গুণ বেশি।

যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকেরা ভারতের মৃত্যুর যে হিসাব দিচ্ছে তা রোগতত্ত্ববিদদের দেওয়া হিসাবের চেয়ে বেশি। রোগতত্ত্ববিদদের ধারণা, সরকারি হিসাবের তুলনায় ভারতে করোনায় মৃত্যু ৫ থেকে ৭ গুণ বেশি।

এ প্রসঙ্গে ভরত সরকারের সাবেক অর্থনৈতিক উপদেষ্টা অরবিন্দ সুব্রামানিয়ান বলেন, যারা মারা গেছেন তারা সবাই যে কোভিড-১৯-এ মারা গেছেন এমনটা নয়। এ ছাড়া কোভিড-১৯ হয়ে ঠিক কতজন মারা গেছেন এটাও নিশ্চিত করে বলা কঠিন।

সেন্টার ফর গ্লোবাল ডেভেলপমেন্টের গবেষণার অন্যতম লেখক অরবিন্দ সুব্রামানিয়ান। তিনি বলেন, এই গবেষণায় যে চিত্র উঠে এসেছে তা অনুসারে, ভারতে করোনায় ৪০ লাখের বেশি মানুষ মারা গেছেন। তিনি বলেন, করোনায় ভারতে মৃত্যু লাখ নয়। এটা কয়েক মিলিয়ন (১০ লাখ)। স্বাধীনতা ও দেশভাগের পর ভারতের ইতিহাসে এটাই সবচেয়ে বড় মানবিক বিপর্যয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *