চতুর্থ তলায় সিঁড়ি তালাবদ্ধ থাকায় সেজান কারখানায় মৃত্যু বেড়েছে

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সেজানের কারখানায় আগু’ন লাগার সময় ভবনের চতুর্থ তলার সিঁড়ির গেট তালাব’দ্ধ থাকায় শ্রমিকরা কেউ বের ‘হতে পারেনি। এতে প্রাণহানির সংখ্যা বেড়েছে বলে জানিয়েছেন ফা’য়ার সার্ভিস কর্মীরা। তারা জানান, ফ্লোর তালাব’দ্ধ না থাকলে এতো প্রাণহানি হতো না।

শুক্রবার দুপুরে ফা’য়ার সার্ভিস কর্মীরা বলেন, ভবনের ভেতরে এখনো আগু’ন জ্বলছে। কারখানায় বিভিন্ন ধরনের কেমিক্যাল থাকায় আগু’ন নেভাতে সময় লাগছে। সবশেষ ৫৩ জনের লা’শ উ’দ্ধারের তথ্য জানিয়েছেন ফা’য়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক দেবাশীষ বর্মন।

ফা’য়ার সার্ভিসের এক কর্মক’র্তা জানান, বৃহস্পতিবার ‘বিকেলে কারখানায় আগু’ন লাগার পর শ্রমিকদের অনেকে ভবন থেকে লাফিয়ে পড়ে আ’হত হয়েছেন। এখনো অন্তত ৪৫ জন শ্রমিক নিখোঁজ রয়েছে। ভবনের পঞ্চম ও ষষ্ঠ তলার আগু’ন নিভলে উ’দ্ধার অ’ভিযান শুরু করা হবে। ওই দুই ফ্লোরে আরো অনেক লা’শ থাকতে পারে বলে জানান তিনি।

এর মধ্যে শুধু ষষ্ঠ তলায় চার শতাধিক শ্রমিক কাজ করতেন। করোনায় চলমান লকডাউনের কারণে তাদের মধ্যে কতজন বৃহস্পতিবার উপস্থিত ছিলেন তা কেউ নিশ্চিত করে জানাতে পারেনি। তবে কারখানা সংশ্লি’ষ্ট একটি সূত্র জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার কারখানায় তিন হাজার শ্রমিক কাজ করছিলেন। অন্য সময় কাজ করতেন সাত হাজার শ্রমিক।

কারখানার একটি সিঁড়ি বন্ধ না থাকলে অনেক প্রাণ বাঁচানো যেত বলে মনে করছেন ফা’য়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক দেবাশীষ বর্মন। শুক্রবার দুপুরে দু’র্ঘটনাস্থলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমর’া গাড়ির মই সেট করে ছাদ থেকে ২৫ জনকে উ’দ্ধার করেছি। বাকিরা যদি ছাদে উঠতে পারত, আমর’া কিন্তু বাঁচাতে পারতাম।’

কবিরাজ: তপন দেব,সাধনা ঔষধালয় । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- আমাদের এখানে নারী ও পুরুষের সকল #যৌন_রোগ সহ জটিল ও কঠিন রোগের সু চিকিৎসা করা হয়।
বিঃ দ্রঃ আমাদের এখান থেকে দেশে ও বিদেশে কুরিয়ার করে ঔষধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০

দেবাশীষ বর্মন আরো বলেন, চতুর্থ তলায় যারা ছিলেন, ‘সেখান থেকে ছাদে যাওয়ার সিঁড়ি তালাব’দ্ধ ছিল। আর নিচের দিকে সিঁড়ির ল্যান্ডিংয়ে ছিল ভ’য়াবহ আগু’ন। উনারা নিচের দিকেও আসতে পারেননি, তালাব’দ্ধ থাকায় উনারা ছাদেও যেতে পারেননি। ফলে প্রাণহানি বেড়েছে।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *