ভালুকায় বৃষ্টিতে ভিজছিলেন বৃদ্ধ ভিক্ষুক, কোলে তুলে নিরাপদে নিলেন পুলিশ সদস্য

ময়মনসিংহের ভালুকায় বৃ’ষ্টিতে ভিজছিলেন রাস্তায় পড়ে থাকা ৭৫ বছরের এক বৃ’দ্ধ ভিক্ষুক। পায়ে প্লাস্টার করাতে তিনি হাঁটতে পারছিলেন না। বি’ষয়টি নজরে আসলে ওই বৃ’দ্ধকে কোলে নিয়ে পুলিশ বক্সে নিয়ে যান সুকান্ত চন্দ্র নামে এক কনস্টেবল।

বুধবার (৩০ জুন) সকালে এমন কয়েকটি ছবি ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ ময়মনসিংহ নামক ফেসবুক পেজে পোস্ট করলে মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে পড়ে। এতেই প্রশংসায় ভাসছেন তিনি। কনস্টেবল সুকান্ত চন্দ্র ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ-৫ ময়মনসিংহ অঞ্চলে কর্মর’ত আছেন। তিনি ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ-৫ এর মোবাইল টিমের গাড়ি চালক বলে জানা গেছে।

ওই ফেসবুক পোস্টে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার (২৯ জুন) দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার মাস্টারবাড়ি এনভয় টেক্সটাইল লিমিটেডের সামনে ওই বৃ’দ্ধ ব্যক্তি তার বৃ’দ্ধা স্ত্রীকে নিয়ে ভিক্ষা করছিলেন।

এমন সময় বৃ’ষ্টির হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়ায় ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ-৫ মোবাইল টিম সদস্যরা এনভয় পুলিশ বক্সে অবস্থান করেন।
একপর্যায়ে বৃ’ষ্টি শুরু হলে বৃ’দ্ধকে বক্সের ভেতরে আসার অনুরোধ করেন পুলিশ সদস্যরা। কিন্তু ওই বৃ’দ্ধের একটি পা প্লাস্টার করা থাকায় তিনি আসতে পারছিলেন না।

পরে কনস্টেবল সুকান্ত চন্দ্র নিজেই গিয়ে ওই বৃ’দ্ধকে কোলে করে পুলিশ বক্সে নিয়ে আসেন। এ বি’ষয়ে সুকান্ত চন্দ্র জাগো নিউজকে বলেন, ‘আকাশে মেঘ দেখেই ওই বৃ’দ্ধকে পুলিশ বক্সে আসার অনুরোধ করি। কিন্তু তিনি আসবে না বলে ভারি বৃ’ষ্টিতে মহাসড়কের পাশেই ভিজছিলেন।

ওই বৃ’দ্ধকে বৃ’ষ্টিতে ভিজতে দেখে খুব খারাপ লাগছিল। তাই তাকে কোলে করে পুলিশ বক্সে নিয়ে আসি।’এ বি’ষয়ে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ-৫ এর ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন।

কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- আমাদের এখানে নারী ও পুরুষের সকল #যৌন_রোগ সহ জটিল ও কঠিন রোগের সু চিকিৎসা করা হয়।
বিঃ দ্রঃ আমাদের এখান থেকে দেশে ও বিদেশে কুরিয়ার করে ঔষধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০

ভারি বৃ’ষ্টির সময় ওই বৃ’দ্ধকে কোলে নিয়ে নিরাপ’দ জায়গায় নেয়ার বি’ষয়টি শুনে আমা’দের পক্ষ থেকে পুলিশ সদস্য সুকান্ত চন্দ্রকে পুরস্কৃত করা হয়েছে। ভবি’ষ্যতে পুলিশ সদস্যরা যাতে এমন মান’বিক কাজ করে সেজন্য সব পুলিশ সদস্যকে উৎসাহ দেয়া হয়।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *