ব্রহ্মপুত্র, যমুনা ও পদ্মা নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে, আকস্মিক বন্যার শঙ্কা।

দেশে ব্রহ্মপুত্র, যমুনা ও পদ্মা নদীর পানি সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে। আগামী ৭২ ঘণ্টা পর্যন্ত তা অব্যাহত থাকলে আকস্মিক বন্যার সৃষ্টি হতে পারে।
এছাড়া দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আপার মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদ ও নদীর পানি সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে যা অব্যাহত থাকতে পারে আগামী তিন দিন পর্যন্ত।গঙ্গা নদীর পানি সমতল হ্রাস পাচ্ছে এবং আগামী ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত তা অব্যাহত থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর ও ভারত আবহাওয়া অধিদফতরের গাণিতিক মডেলের তথ্যে এ কথা জানানো হয়েছে। তাদের তথ্য অনুযায়ী, আগামী তিন দিন দেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চল, দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চল এবং এর কাছাকাছি এলাকায় ভারতের হিমালয় পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ, সিকিম, আসাম, মেঘালয় ও ত্রিপুরা প্রদেশের স্থানে ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস রয়েছে।

এর ফলে এই সময়ে দেশের উত্তরাঞ্চলের তিস্তা, ধরলা, দুধকুমার, ব্রহ্মপুত্র, উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আপার মেঘনা অববাহিকার এবং দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় পার্বত্য অববাহিকার প্রধান নদীসমূহের পানি সমতল সময় বিশেষে দ্রুত বৃদ্ধি পেয়ে কিছু স্থানে আকস্মিক বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে।

পর্যবেক্ষণাধীন ১০১টি পানি সমতল স্টেশনের মধ্যে বৃদ্ধি পাচ্ছে ৭৮টির। আর হ্রাস পাচ্ছে ২২টির এবং গেজ পাঠ পাওয়া যায়নি ১টির।
গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে উল্লেখযোগ্য বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে দূর্গাপুরে ২২১ মিলিমিটার, লামায় ১৮৪ মিলিমিটার, নাকুয়াগাঁওয়ে ১৭৫ মিলিমিটার, রামগড়ে ১৪৬ মিলিমিটার,

কবিরাজ: তপন দেব,সাধনা ঔষধালয় । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- আমাদের এখানে নারী ও পুরুষের সকল #যৌন_রোগ সহ জটিল ও কঠিন রোগের সু চিকিৎসা করা হয়।
বিঃ দ্রঃ আমাদের এখান থেকে দেশে ও বিদেশে কুরিয়ার করে ঔষধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০

বান্দারবনে ১২০ মিলিমিটার, চট্টগ্রামে ১৭৫ মিলিমিটার, টেকনাফে ১২৯ মিলিমিটার, চাঁদপুর বাগানে ১১৬ মিলিমিটার, মহেশখোলায় ১০৬ মিলিমিটার, শেরপুর-সিলেটে ১০৫ মিলিমিটার, নারায়ণহাটে ১০৫ মিলিমিটার এবং ভৈরব বাজারে ৯৫ মিলিমিটার।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *