আয়ুর্বেদিক চিকিৎসায়ঃ ঘুমানোর আগে দুটি লবঙ্গ খাওয়ার বিস্ময়কর উপকারিতা।

মশলা হিসেবে লবঙ্গ বেশ জনপ্রিয়। এর ব্যবহারে খাবারে ভিন্ন স্বাদ আসে। খাবারের স্বাদ বাড়ানো ছাড়াও এর রয়েছে অনেক ওষুধিগুণ। তাইতো বহুকাল থেকেই আয়ুর্বেদিক চিকিৎসায় লবঙ্গ ব্যবহার হয়ে আসছে। নিয়মিত লবঙ্গ খেলে পেটের অসুখ থেকে দাঁত ও গলাব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

এতে থাকা ইউজেনোল মানসিক চাপ কমায় এবং পেটের সাধারণ অসুখ থেকে মুক্তি দেয়। আরও জেনে অবাক হবেন যে, ছোট্ট এই মশলা পারকিনসন রোগ থেকে দূরে রাখতে সহায়তা করে। এতে ভিটামিন ই, ভিটামিন সি, ফলিত, রিবোফ্লোবিন, ভিটামিন এ, থায়ামিন।

ভিটামিন ডি, ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে। এছাড়াও এতে রয়েছে প্রদাহ এবং ব্যাকটেরিয়া প্রতিরোধী উপাদান। ঘুমাতে যাওয়ার আগে দুটি লবঙ্গ চিবিয়ে এক গ্লাস পানি পান করে নিন। এই অভ্যাস আপনাকে নিচের জটিল সমস্যাগুলো থেকে মুক্তি দেবে-

নিয়মিত লবঙ্গ খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

লবঙ্গ খুসখুসে কাশি এবং গলাব্যথা উপশমে সহায়তা করে।

সর্দি, কাশি, ভাইরাল ইনফেকশন, ব্রঙ্কাইটিস, সাইনাস এবং এজমা থেকে সেরে উঠতে সহায়তা করে লবঙ্গ।

কবিরাজ: তপন দেব,সাধনা ঔষধালয় । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- আমাদের এখানে নারী ও পুরুষের সকল #যৌন_রোগ সহ জটিল ও কঠিন রোগের সু চিকিৎসা করা হয়।
বিঃ দ্রঃ আমাদের এখান থেকে দেশে ও বিদেশে কুরিয়ার করে ঔষধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০

রাতে লবঙ্গ চিবিয়ে খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়রিয়া, অম্লতা থেকে মুক্তি মিলবে। এটি আপনার হজমক্রিয়ার উন্নতি ঘটায়।

উষ্ণ পানিতে লবঙ্গ খেলে দাঁতের ব্যথা উপশম করে। এছাড়া দাঁতের কোনায় লবঙ্গ রেখে দিতে পারেন এতে ব্যথা উপশম করবে।

এতে উচ্চমাত্রায় অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান রয়েছে। এতে এক ধরনের স্যালিসাইলেট রয়েছে যা ব্রণ প্রতিরোধ করে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *