Categories
Uncategorized

হ’ঠাৎ শত শত ম’দের বোতল ভেসে আসছে কক্সবাজার সৈকতে

দীর্ঘদিন ধরে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে নেই কোনো পর্যটকের আনাগোনা। সাড়ে ৩ মাসেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ রয়েছে পর্যটন এলাকার হোটেল-মোটেল থেকে শুরু করে সংশ্লিষ্ট সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। কিন্তু জনশূন্য বিশ্বের দীর্ঘতম এই সমুদ্র সৈকত সয়লাব হয়ে গেছে শত শত টন বর্জ্য। রোববার (১২ জুলাই) সকালে সরেজমিন গিয়ে এই দৃশ্য দেখা গেছে। কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের কলাতলী, দরিয়ানগর থেকে শুরু করে হিমছড়ি সৈকত এলাকা পর্যন্ত শনিবার রাত থেকে ভেসে আসছে এ সব বর্জ্য। এত বর্জ্য হ’ঠাৎ কোথা থেকে এল তা অনুসন্ধান শুরু করেছে প্রশাসন।

এ সব বর্জ্যের মধ্যে শুধু প্লাস্টিক, ইলেকট্রনিক পণ্য নয়, ভেসে এসেছে শত শত বিভিন্ন প্রকারের ম’দের বোতল। এতে আটকে মা’রা যাচ্ছে কাছিমসহ সামুদ্রিক নানা ধরনের প্রাণী। পাশাপাশি চরমভাবে দূষণের কবলে পড়ছে পরিবেশ। ইতিমধ্যে মা’রা গেছে সামুদ্রিক কচ্ছপসহ কয়েক প্রকারের প্রাণী। আবার আটকেপড়া অনেক জীবিত কচ্ছপকে সমুদ্রে অবমুক্ত করা হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে।

সেভ দ্য নেচার অব বাংলাদেশ নামের কক্সবাজারভিত্তিক পরিবেশ সংগঠনের চেয়ারম্যান আ ন ম মোয়াজ্জেম হোসাইন জানান, শনিবার রাত থেকে এ সব বর্জ্য আসতে শুরু করেছে। কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেন, বিষয়টি তিনি শোনার সঙ্গে সঙ্গে একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি বর্জ্যগুলো কোথা থেকে এল এবং কিভাবে তা অপসারণ করা যায় তা দেখা হচ্ছে।

Categories
Uncategorized

আমি বরাবরই মেয়েদের ঘৃ’ণা করি

যখন ছোট্ট ছিলাম কিছু খাওয়ার মত দাঁত বা শক্তি দুটোর একটাও ছিলো না তখন আমরা মায়ের স্তন পান করেছি একজন মায়ের আগে তিনি একজন মেয়ে নারী, কারোর বৌ,কারোর বোন,কোনো বাবার রাজকন্যা না আমি নারীবাদী পোস্ট করছি না আমি বরাবরই মেয়েদের ঘৃ’ণা করি কেনো করি জানেন ?

কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- নারী ও-পুরুষের সকল প্রকার- জটিল ও গোপন রোগের চিকিৎসা করা হয়। দেশে ও বিদেশে ওষুধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০ (সময় সকাল ৯ – রাত ১১ )

তারা সুন্দর করে রান্না করে নিজেরা পরে খায় আমাদের আগে খাওয়ায় সুন্দরভাবে সাজে কালো মেয়েটিও যৌব’ন অন্ধকারেই বিলিয়ে দেয় নিজের যা সম্বল ছিলো যেটা সংরক্ষিত ছিলো ২২ বা ২৩ বছর ধরে বাসররাতেই সব উজাড় করে দেয় আমি ঘৃণা করি তাঁদের কারণ তারা বিবাহের আগেই বয়ফ্রেন্ড কে ইচ্ছা মর্জি স্পর্শ করতে দেয় স্তন হাতও দিতে দেয়

আমি ঘৃণা করি তাঁদের কেননা তারা গর্ভে রেখে আমার আপনার মত ছেলেকে জন্ম দেয় ১০মাস ১০ দিন রাখে ভার্চুয়ালে আমার কাছে এমন এমন মেয়ে আসে যারা বয়ফ্রেন্ড নামক প্রতারকের শিকার যা বলার ভাষা নেই আমার

অনেক আইডিও দেখি এমন কি পেইজও নজরে আসে সবটা বলতে গেলে হয়তো লম্বা চড়া পোস্ট হয়ে যাবে আমি নারীদের সত্যিই ঘৃণা করি কারণ তারা প্রত্যেকে জান্নাতের মালিক আর সেই জান্নাতের মালিকা আমাদের পায়ে পড়ে অনুনয় করে বাঁচতে চায়

স্বামীর পায়ের নিচে বেহশত মানে তারা আরে ভাই পরের বোনও তো আপনার আমার বোনের মতই বোন জান্নাতের মালিকাকে সম্মান দিচ্ছেন না মুনাজাতে জান্নাত খুজা ছাড়ুন ভাই বেকার পাবেন না

যাই হউক ছোট্ট একটা গল্প বলি

একবার আমি সদর ঘাটে গিয়েছিলাম রাত্রে ১২টা তো হবে কিছু বন্ধু বান্ধবসহ জী আপনি ভাবতে পারেন আমি হয়তো দেহলোভী সমস্যা নেই তো কি হলো সেখানে গেলাম ৪জন হবে আমরা একজন সুন্দর মেয়ে এলো বললো বাবু রেট হচ্ছে ৫০০টাকা ফুল নাইট আর দুই চার ঘন্টা দুই বা তিনশো দিলে হবে ৩জন ই রাজি হলো আমি ছাড়া আমি বললাম আপনার সাথে কি এক মিনিট কথা বলা যাবে???

উত্তরে বোনটি বললো জী কিন্তু বুঝেছি টাকা দিতে হবে তাই তো ঠিক আছে আমি ১ হাজার টাকা দিবো কিন্তু কথা বলতে হবে বেশি না ৩০ মিনিট হাহাহাহা হিহিহি করে হাঁসলো বিশ্বাস করবেন না হাঁসিটা অনেক সুন্দর ছিলো

আচ্ছা বাবু বলেন কি বলবেন জেনে রাখা ভালো টেবিল আর চেয়ারের বন্ধবাস্ত ছিলো আচ্ছা আপনি এই কাজটাই কেনো বেঁচে নিলেন?এত কাজ কর্ম পেশা থাকতে??? ভবিষ্যত সম্পর্ককে কিছু জানতে চা???+ অন্য পেশাও তো আছে তার জবাব

আমার সুন্দর একটা স্বপ্ন ছিলো একজনের ঘরনি হবো যাকে ভালোবাসতাম সে আর আমি থাকবো বাচ্চা হবে আরও কত কি তারপর তারপর আর কি বাবু গ্রাম হতে ঢাকায় নিয়ে এলো কেনো????

বাড়িতে বিয়ে ঠিক করেছিলো দুুজন দুজনকে ভালোবাসি তাই পালিয়ে এসেছি তারপর রাতে একসাথে শুইলায় শারীরিক সম্পর্ক হলো ইংরেজিতে কি বলে রুম টিড আমি বললাম Room Date

ঐ আর কি লাইট জ্বালা ছিলো একটা ক্যামেরা ছিলো ভিডিও বানাইছে টের পেয়েও পাইনি সহজ সরল পেয়ে সর্বনাশ করলো আমার তারপর হুমকি টুমকি দিয়ে এই সদর ঘাটে এনে বেঁছে দিছে প্রথম কয় একদিন শারীরিক সমস্যায় পড়েছি এখন আর লাগে না

ভবিষ্যতের কথা কি আর বলমু বলেন আমার দেহের বিনিময়ে যদি কোনো বোন বাচে তাহলে হয়তো বিফলে যাচ্ছে না দেহটা তারপরও চাইবো যেনো আমার মত খপ্পড়ে কেউ না পড়ে ধর্ষণ থামার যেনো আমরা পতিতা কারণ হই

(কিছু বলার ভাষা পাইনি হাতে টাকা গুজে দিলাম তিনি নিতে নারাজ বললো কাম করে নিই তাছাড়া না আমি বললাম বোন এটা তোমার ভাইয়ের তরফ থেকে আমায় তোমার ভাই ভাবতে পারো ভাইয়া আমায় এখান থেকে নিয়ে যাবেন??????

আমি চুপ

তিনি আবার বললেন

জানি সম্ভব না

মজাক করলাম

আমি জোড় করতেই তিনি টাকা নিলেন আর বললেন ধন্যবাদ)

আমি বন্ধুদের ছেড়েই হাঁটতে লাগলাম

আমার বন্ধুরা ভদ্র পরিবারের সন্তান

সেদিন আরও বুঝেছি কতোটা

আসাটা হঠাৎ রাস্তায় সব বলছে তারপর দ্বিমত রেখেও

আপনি ভাবতে পারেন কেনো জেনে শুনেও এসেছি

আমি গিয়ে ছিলাম কাউকে যদি পাই গল্প শুনবো

ব্লাক খাই তাছাড়া অন্য সব সিগারেটে এর্লাজি আছে আমার

টানতে লাগলাম
মুঠোফোনে
একটা গান ছেড়ে দিয়ে হাঁটতে লাগলাম

ভাবলাম অনুনয়টা আবার

ভাইয়া আমাকে এখান থেকে নিয়ে যাবেন???????????

কান্নায় চোখ হতে একফোটা অশ্রু টুপ করে পড়লো

সত্যিই বাস্তবতা কত কঠিন

জান্নাত কে পুরুষ নামের কিছু হিজরা বিক্রি করছে

আর কিছু মহাপুরুষ

ভদ্র ঘরের ভদ্র সন্তান ক্রয় করছে

আবার একটা সিগারেট লাগালাম

আবার একটা

ভাঁবতেই পারছি না কাঁকে খারাপ বলবো

সহজ সরল মেয়েটা নাকি মুখো’শধারি ধ’র্ষক প্রেমিক কে

নাকি নিজেকে যে কিছুই করতে পারলাম না

আধও কি কিছুই করার নেই

আবার একটা সিগারেটে টান দিলাম

আমি কাঁদি না
তবে ভালো করে লক্ষ্য করে দেখলাম অশ্রু ফোটা বেয়ে পড়ছে

বোন দোয়া করিস যেনো কোনোদিন বড় ব্যক্তির মধ্যে অন্যতম হই

মুখের কথা নয় কাজে প্রমাণ করবো সমাজটা তোমাদের জন্যই সুশীল

কারণ দিনের সুশীলরাই রাতে অ’শ্লীল কর্ম কান্ড করে
জায়গা করে দিবো প্রতিষ্ঠিত হবার
হয়তো অসম্ভব কিন্তু আমি বিশ্বাস করি না

মাফ করিস বোন

এই দেশের দোষ নেই তোর ভাইগুলো জীবিত নেই

থাকলেও আমার মত নিরুপায়

মাফ করে দিস

দোয়া করিস সুদিন যেনো আসে

জুন- ২৩- ২০১৯

পৃষ্টা ৫৫০

ডায়রি – অন্ধকারের প্রত্যাশা

Categories
Uncategorized

১১ জেলায় ব’ন্যা পরিস্থিতির অ’বনতি হতে পারে

দেশে ক’রোনা ভা’ইরাসের মধ্যে দেখা দিয়েছে ব’ন্যা। এগারোটি অঞ্চলে আগামী ২৪ ঘন্টায় বন্যা পরিস্থিতির অ’বনতি হতে পারে। রোববার (১২ জুলাই) বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়ে বলা হয়েছে, নীলফামারী, লালমনিরহাট, রংপুর, কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, বগুড়া, জামালপুর, নাটোর, সিলেট, সুনামগঞ্জ এবং নেত্রকোণা জেলার নিম্নাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে।

আগামী ২৪ ঘন্টায় যমুনা, কাজীপুর ও সিরাজগঞ্জ পয়েন্টে এবং পদ্মা নদী- গোয়ালন্দ পয়েন্টে পানি বি’পদসীমা অ’তিক্রম করতে পারে।
এছাড়া ব্রহ্মপুত্র-যমুনা,গঙ্গা-পদ্মা এবং উত্তর পূর্বাঞ্চলের আপার মেঘনা অ’ববাহিকার প্রধান নদ নদীরসমূহের পানি সমতল বৃদ্ধি পেতে পারে। যা আগামী ৭২ ঘন্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

আগামী ২৪ ঘন্টায় তিস্তা ও ধরলা নদীর পানি সমতল বৃদ্ধি অ’ব্যাহত থাকতে পারে এবং বি’পদসীমার উপর দিয়ে অ’তিক্রম করতে পারে। আগামী ২৪ ঘন্টায় দক্ষিণ-পূর্ব পার্বত্য অঞ্চলে ভারী বৃ’ষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে এ অঞ্চলের সাঙ্গু, হালদা ও মাতামুহুরী নদীর পানি দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

অপরদিকে,দেশের ১০১ টি পর্যবেক্ষণাধীন পানি সমতল স্টেশনের মধ্যে বৃদ্ধি পেয়েছে ৭৬ টির, হ্রাস পেয়েছে,২৩ টির,অপরিবর্তিত রয়েছে ২ টি এবং বি’পদসীমার উপরে রয়েছে ১৬ টির। সারাদেশে গত ২৪ ঘন্টায় উল্লেখযোগ্য বৃষ্টিপাত হয়েছে,সুনামগঞ্জে ১৫০ মিলিমিটার,লালাখাল ১৪৮ মিলিমিটার, ঠাকুরগাঁও ১২১ মিলিমিটার, কমলগঞ্জে ১০৮ মিলিমিটার,মনু রেলওয়ে ব্রিজ ১০৪ মিলিমিটার, শেরপুর ৯২ মিলিমিটার,সিলেট ৯৫ মিলিমিটার, পঞ্চগড় ৯২ মিলিমিটার,শ্যওড়া ৯২ মিলিমিটার, নোয়াখালী ৮৫ মিলিমটার।

Categories
Uncategorized

নামাজ যেভাবে রো’গ প্রতিরোধ ক্ষ’মতা বাড়ায়

নামাজের মাধ্যমে মু’সলমানরা দিনের মধ্যে পাঁচবার আল্লাহর কাছে নিজেকে সমর্পণ করেন। নিজের কৃত পাপ কাজের জন্যে ক্ষমা চান, জগতের সব সৃষ্টির কৃত পাপের জন্যে ক্ষমা চান। সহজ সরল সঠিক পথে পরিচালনার জন্যে প্রতি রাকাতে, প্রতি সিজদায় আল্লাহর সাহায্য চান, প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হন।

একাগ্রচিত্তে নামাজ যেমন মন মননকে পরিশুদ্ধ করে তেমনি দে’হকেও করে পবিত্র, শুদ্ধ, কর্মচঞ্চল। দিনের পাঁচ’টি সময়ের প্রত্যেকটি নামাজ প্রধানত ফরজ, সুন্নত ও নফলে বিভক্ত। ফরজ নামাজ দুই রাকাত তিন রাকাত বা চার রাকাতের সমন্বয়ে আদায় করে নেওয়া হয়। ফরজ নামাজ যা অবশ্যই আপনাকে আদায় করতে হবে। সবচেয়ে কম রাকাত সম্পন্ন ফর‍য নামাজ হলো ফজরের, যা মাত্র দুই রাকাত।

পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন দে’হে এবং কাপড়ে প্রত্যেক নামাজের আগে অজু করে নেওয়া বা’ধ্যতামূ’লক। সে ওজুর পানিটিও হতে হয় পরিষ্কার, পরিচ্ছন্ন পবিত্র। নাক, মুখ কান চুল হাত পা সবই ওজুর সময় পানি দিয়ে পরিষ্কার করে নিতে হয়, মুছে নিতে হয়। দিনের মধ্যে এভাবে বারবার পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন দে’হে, নিভৃতে একাগ্রচিত্তে সৃষ্টিকর্তার কাছে আত্মসমর্পণ করা একমাত্র ইসলাম ধর্মেই আছে।

নামাজের সময় প্রত্যেক রাকাতের সময় হাত বাঁ’ধা ছাড়াও দাঁড়ানো, বসা, রুকুতে যাওয়া, সিজদায় যাওয়া, সালাম ফেরানো, ইত্যাদি মোট ৭ থেকে ৯ রকমের শারিরীক অ’ঙ্গভ’ঙ্গিতে প্রতিবার নির্দিষ্ট সময় নিয়ে বসে বা দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। এই অ’ঙ্গবিন্যাসে অবস্থান সব সুস্থ মানুষের জন্যে একটা নির্দিষ্ট নিয়মে, নির্দিষ্ট সময়ের জন্যে একইভাবে।

দে’হকে সুস্থ সবল রাখতে, দে’হের ইমিউনিটিকে সুদৃঢ় রাখতে শ’রীর চর্চা বা’ধ্যতামূ’লক। একজন মু’সলমান প্রতিদিন একাগ্রচিত্তে দুই রাকাত নামাজের সময় মোট ১৪ বার বিভিন্ন শা’রীরিক বিন্যাসে থেকে নামাজ আদায় করতে হয়।

সে হিসেবে তাঁকে একাগ্রচিত্তে প্রতিদিন ১১৯ বার, মাসে ৩৭৫০ বার এবং বছরে ৪২ হাজার ৮৪০ বার শ’রীরকে বিভিন্ন অ’ঙ্গবিন্যাসে থেকে সালাত আদায় করে নিতে হয়। যা আমাদের প্রাকৃতিক রো’গ প্রতিরোধ ক্ষ’মতা বা ইমিউনিটিকে বাড়িয়ে দেয় অনেক গুণ।

কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- নারী ও-পুরুষের সকল প্রকার- জটিল ও গোপন রোগের চিকিৎসা করা হয়। দেশে ও বিদেশে ওষুধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০ (সময় সকাল ৯ – রাত ১১ )

যদি একজন মু’সলমান গড়ে ৫০ বছর বাঁচেন এবং তিনি যদি ১০ বছর ব’য়স থেকে শুধু বা’ধ্যতামূ’লক সালাত গুলো আদায় করা করেন তাহলে দেখা যায় তাকে সারাজীবনে মোট ১৭ লাখ ১৩ হাজার ৬ শ’তবার শ’রীরটাকে নির্দিষ্ট কিছু অ’ঙ্গবিন্যাসে রেখে, নির্দিষ্ট কিছু সময় নিয়ে অবস্থান করতে হয় যা পৃথিবীর সেরা শ’রীর চর্চার অন্যতম হিসেবে পরিগনিত।

নামাজে সিজদার মাধ্যমে সবচেয়ে বেশি উপকৃত হয় আমাদের দে’হের ফুসফুস। কারণ এ অবস্থানে ফুসফুস দে’হের জন্যে প্রয়োজনীয় সবচেয়ে বেশী র’ক্ত স’ঙ্গে অক্সিজেনের সমন্বয় ঘটাতে পারে।

র’ক্তে অক্সিজেন সেচুরেশন বৃ’দ্ধি পায়। এজন্য দেখা যায় আইসিইউ’তে কোমায় থাকা রো’গীর অক্সিজেন স্যাচুরেশন অবনতি ঘটলে তার র’ক্তের অক্সিজেন বাড়াতে রো’গীকে অনেকটা সিজদার মতো পজিশনে রাখা হয়। একে বলে প্রোনিং।একজন মু’সলিমের প্রতিদিনের এই নামাজ আদায়ে একজন মানুষের ৮০ কিলো ক্যালরি শ’ক্তি ব্যয় হয়।

ক’রোনাভা’ইরাসে প্রতিরোধে শুরু থেকেই সারা বিশ্বের সব চিকিৎসা গবেষকরা একটা পরামর্শই বারবার দিয়ে আসছেন যা হলো পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা, বারবার হাত ধোয়া এবং ইমিউনিটি বাড়াতে নিয়মিত শ’রীর চর্চা ও শুদ্ধাচার অবলম্বন করা।রাব্বুল আ’লামীন বিশ্বের সবাইকে ক’রোনাভা’ইরাসে থেলে মুক্ত রাখু’ন। আমীন।

Categories
Uncategorized

ফে’র ইতালিতে ক’রোনার ধা’ক্কা, নতুন আ’ক্রান্তদের বেশিরভাগ বাংলাদেশি

কোভিড-১৯ ক’রোনা ভা’ইরাসের প্রথম ধা’ক্কা সামলে উঠতে না উঠতেই ইতালিতে ফে’র ক’রোনার সং’ক্রমণ শুরু হয়েছে। তবে এতে বাংলাদেশি প্রবাসীদের দায়ী করা হচ্ছে। লাজিও অঞ্চলে নতুন করে শ’নাক্ত হওয়া ১৯ জনের মধ্যে ৮ জনই বাংলাদেশের কমিউনিটি ক্লাস্টারের সঙ্গে সম্পৃক্ত। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানায়। গত ২৪ ঘণ্টায় ইতালিতে আরও ১৮৮ জন নতুন ক’রোনা রো’গী শ’নাক্ত করা হয়েছে। গত একদিনে ইতালিতে ক’রোনায় মা’রা গেছেন ৭ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত ক’রোনায় মা’রা গেছেন ৩৪ হাজার ৯৪৫ জন।

আরও বলা হয়, ইতালির নতুন ১৮৮ জন ক’রোনা রো’গীর এক তৃতীয়াংশই লোম্বার্দি অঞ্চলের। ইতালির এই অঞ্চলটিতে সবচেয়ে বেশি ক’রোনা আ’ক্রান্ত রো’গী শ’নাক্ত করা হয়েছে। ইতালির সরকারি স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন, ইতালিতে এখনও ক’রোনার প্রকোপ নিয়ন্ত্রণে আছে। তবে তারা স্থানীয় এবং আন্তর্জাতিক ক্লাস্টারগুলোর দিকে নজর রাখা হচ্ছে।

ক’রোনার প্রকোপ প্রতিরোধে বাংলাদেশসহ ১৩ দেশ থেকে ইতালিতে প্রবেশের ক্ষেত্রে সাময়িক নি’ষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। সম্প্রতি ইতালিতে যাওয়া বেশ কয়েকজন বাংলাদেশির শরীরে ক’রোনা শ’নাক্তের পর এই সিদ্ধান্ত নেয় দেশটির সরকার।

নতুন করে ক’রোনা সং’ক্রমণ ঠেকাতে ইতালির স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদক্ষেপকে অপর্যাপ্ত উল্লেখ করে তার কড়া সমালোচনা করেছেন দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিরোধ বিভাগের পরিচালক জিয়ানি রেজা।

কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- নারী ও-পুরুষের সকল প্রকার- জটিল ও গোপন রোগের চিকিৎসা করা হয়। দেশে ও বিদেশে ওষুধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০ (সময় সকাল ৯ – রাত ১১ )

ক’রোনা সং’ক্রমণ বৃদ্ধি প্রতিরোধে যাতায়াত নি’ষিদ্ধ দেশের তালিকা আরও বড় করার দাবি জানিয়েছেন ইতালির বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, ভারত, পাকিস্তান, যুক্তরাষ্ট্রের মতো ব্যাপক হারে ক’রোনা সং’ক্রমিত দেশের নাম ঐ তালিকায় না থাকা খুবই দৃষ্টিকটু। তারা দ্রুত এ ধরনের দেশগুলোর সঙ্গেও যাতায়াত বন্ধের দাবি জানিয়েছেন।

Categories
Uncategorized

বি’শ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় নিয়োগ পেলেন বাংলাদেশের সেঁজুতি

বি’শ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (হু) পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন বাংলাদেশের অণুজীব বিজ্ঞানী ডা. সেঁজুতি সাহা। সংস্থাটির দ্য পোলিও ট্রানজিশন ইনডিপেনডেন্ট মনিটরিং বোর্ডে (টিআইএমবি) নিয়োগ পেয়েছেন তিনি। সেঁজুতি বর্তমানে বাংলাদেশের শিশু বিষয়ক বেসরকারি গবেষণা সংস্থা চাইল্ড হেলথ রিসার্চ ফাউন্ডেশনে (সিএইচআরএফ) কর্মরত আছেন। শুক্রবার (১০ জুলাই) সিএইচআরএফ-এর ওয়েবসাইটে দেওয়া এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বি’শ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার টিআইএমবি প্রকল্প মূলত বি’শ্বব্যাপী পোলিও রো’গের বিস্তার নিয়ে কাজ করে। ২০১৮ সালের মে মাসে অনুমোদনের পর থেকে পোলিও সং’ক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ে কাজ করছে হু। বোর্ডের আরও দুই সদস্যের সঙ্গে সেঁজুতি সাহা মূলত হু’র মহাপরিচালক পর্যায়ে পোলিও সং’ক্রমণ প্রক্রিয়াটির অগ্রগতি বিষয়ে পরামর্শ দেবেন। বি’শ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এই বোর্ডে সভাপতি যুক্তরাজ্যের সাবেক প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা স্যার লিয়াম ডোনাল্ডসন। তিনি একইসঙ্গে লন্ডন স্কুল অব হাইজিন অ্যান্ড ট্রপিক্যাল মেডিসিনের পাবলিক হেলথ বিভাগের অধ্যাপক।

Categories
Uncategorized

শাহেদের পা’লানোর সুযোগ নে’ই, যেকোন সময় গ্রে’ফতার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. শাহেদের বিদেশে পা’লিয়ে যাওয়ার সুযোগ নে’ই এবং যেকোনও সময় তাকে গ্রে’ফতার করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। আজ রবিবার (১২ জুলাই) ঈদুল আযহা উপলক্ষে দেশের সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি পর্যালোচনা, কোরবানির পশুর হাটের নিরাপত্তা ও চামড়া পাচার রোধকরণ এবং শিল্পাঞ্চলে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণসহ প্রাসঙ্গিক বিষয়ে করণীয় নির্ধারণের লক্ষ্যে সভা শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

শাহেদকে গ্রে’ফতারের বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাকে খুঁজে বের করবে। তবে, তারও উচিত আ’ত্মসমর্পণ করা।’ তিনি বলেন, ‘শাহেদকে ধরতে র‌্যাব-পুলিশ তাকে খুঁজছে। আশা করি, খুব শিগগিরই তা জানাতে পারবো।’ মন্ত্রী বলেন, রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান শাহেদ যত বড় ক্ষমতাবানই হোন না কেন তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।

সাহেদকে খোঁজা হচ্ছে, তাকে আত্মসমর্পণ করতে হবে, অন্যথায় তাকে গ্রে’ফতার করা হবে। তার বিদেশ যাওয়ার সুযোগ কোনও সুযোগ নে’ই। যে কোনও সময় শাহেদ গ্রে’ফতার হবে।’ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘শাহেদের সকল অপরাধ তদন্ত করা হচ্ছে, দ্রুতই এ বিষয়ে রিপোর্ট দেয়া হবে।’
এ সময় শাহেদ গ্রে’ফতার না হওয়া পর্যন্ত তাকে গ্রে’ফতারের চেষ্টা চলবে বলে জানান আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ।

Categories
Uncategorized

কন্যাসহ ক’রোনায় আ’ক্রান্ত ঐশ্বরিয়া

এবার ক’রোনা আ’ক্রান্ত হলেন ঐশ্বরিয়া রায় বচ্চন এবং তার কন্যা আরাধ্যা। অমিতাভ ও অভিষেক বচ্চনের কোভিড ১৯ রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর শনিবার (১১ জুলাই) বচ্চন পরিবারের বাকি সদস্যদের ক’রোনা টেস্ট করা হয়। সেই ক’রোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নে’গেটিভ এলেও লালারসের নমুনা পরীক্ষা রিপোর্টে ১০ বছরের আরাধ্যা ও বচ্চন পূত্রবধূর ঐশ্বরিয়ার শরীরে ক’রোনাভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে।

কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- নারী ও-পুরুষের সকল প্রকার- জটিল ও গোপন রোগের চিকিৎসা করা হয়। দেশে ও বিদেশে ওষুধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০ (সময় সকাল ৯ – রাত ১১ )

এর আগে শনিবার রাতে প্রথমে অমিতাভ বচ্চন ও পরে অভিষেক বচ্চনের কোভিড-১৯ টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। মাঝারি লক্ষণ নিয়ে তারা ২ জনেই মুম্বাইয়ের নানাবতী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। লক্ষণ দেখা যাওয়ার পরেই তাদের হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

Categories
Uncategorized

তে’লাপোকা দূ’র করার সহজ উপায়

তে’লাপোকার উ’পদ্রব সহ্য করতে হয়নি এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না। সাধারণত, বাড়িঘর ময়লা থাকলে সেখানে তে’লাপোকা বাসা বাঁধে। তাই ঘর পরিষ্কার রাখার পাশাপাশি তে’লাপোকার দূর করার অন্যান্য পন্থা সম্পর্কেও সচেতন থাকা প্রয়োজন। গৃহস্থালী-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে ঘর থেকে তে’লাপোকা দূর করার কয়েকটি উপায় সম্পর্কে জানান হল।

ঘরবাড়ি পরিষ্কার রাখা: তেলাপোকার যন্ত্রণা থেকে বাঁচতে এর বিকল্প নে’ই। তে’লাপোকা খাবার ও ময়লা স্থান পছন্দ করে এবং সেখানেই বাসা বাঁধে। নিয়মিত বাড়ি-ঘর পরিষ্কার করা হলে তে’লাপোকা বাসা বাঁধতে পারেনা।

চুলের স্প্রে ব্যবহার: তে’লাপোকার ওপর চুলের স্প্রে দিয়ে স্প্রে করলে তা আর নড়তে পারে এবং একটা পর্যায়ে দু’র্বল হয়ে যায় তখন তা সরিয়ে বা মে’রে ফেলতে পারেন।

তেজ পাতা: তে’লাপোকা তেজ পাতার গন্ধ সহ্য করতে পারেনা। তাই তেজপাতা গুঁড়া করে তা ঘরের আনাচে কানাচে ছড়িয়ে রাখুন। আর তে’লাপোকা কোথায় বাসা বেঁধেছে তা জেনে থাকলে সেখানেই ছিটিয়ে দিন। এর গন্ধে তারা সেস্থান ত্যা’গ করবে।

অ্যামোনিয়া: যদিও এর গন্ধটা খুব একটা ভালো না তবুও তে’লাপোকার উপদ্রপ থেকে বাঁচতে রান্নাঘরের আনাচেকানাচে অ্যামোনিয়া দিয়ে পরিষ্কার করুন। এক বালতি পানিতে দুই কাপ অ্যামনিয়া মিশিয়ে তা দিয়ে ঘর পরিষ্কার করে নিন।

কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- নারী ও-পুরুষের সকল প্রকার- জটিল ও গোপন রোগের চিকিৎসা করা হয়। দেশে ও বিদেশে ওষুধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০ (সময় সকাল ৯ – রাত ১১ )

আঠার ব্যবহার: এই পদ্ধতি খুব সহজ ও কার্যকর। উন্নত মানের আঠা যেমন- ডাক টেপ ঘরের বিভিন্ন স্থানে আঠালো অংশ উপরিভাগে দিয়ে রেখে দিন। এর উপর দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে তে’লাপোকা আটকে যাবে।

Categories
Uncategorized

সাগরপথে ইতালি পৌঁছালেন ৩৬২ বাংলাদেশি

প্রা’ণঘাতী ক’রোনা ভা’ইরাস পরিস্থিতিতে বাংলাদেশীদের ইতালি প্রবেশে বাঁ’ধা হয়ে দাঁড়িয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। তাই এই ম’হামারীর মধ্যেই ভূ’মধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ৩৬২ জন বাংলাদেশি ইতালি পৌঁ’ছেছেন। ইতালির লাম্পেদুসা দ্বীপের কাছ থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। গতকাল শনিবার (১১ জুলাই) ইতালির সংবাদমাধ্যম দ্য লোকাল তাদের প্রতিবেদনে এ তথ্য দিয়েছে।

উদ্ধার হওয়া বাংলাদেশি ছাড়াও বিভিন্ন দেশের আরও শতাধিক নাগরিক রয়েছেন বলে শুক্রবার আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) বরাতে জানিয়েছে বাতা সংস্থা এএফপি। দ্য লোকালে বলা হয়, গত দুই দিনে লিবিয়া ও তিউনিশিয়া উপকূল থেকে ৯টি নৌকায় করে ৫ শতাধিক লোক ইতালির লাম্পেদুসা দ্বীপে পৌঁছেছেন। এর মধ্যে দুটি নৌকা লিবিয়া থেকে গেছে।

কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- নারী ও-পুরুষের সকল প্রকার- জটিল ও গোপন রোগের চিকিৎসা করা হয়। দেশে ও বিদেশে ওষুধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০ (সময় সকাল ৯ – রাত ১১ )

এর একটিতে ৯৫ জন ও অপরটিতে ২৬৭ জন বাংলাদেশি রয়েছেন। ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে প্রায়ই এশিয়া ও আফ্রিকা মহাদেশের অভিবাসনপ্রত্যাশীরা নৌকায় জীবনের ঝুঁ’কি নিয়ে ইতালিতে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কেউ গন্তব্যে পৌঁছান, আবার কেউ পথেই নৌকাডু’বে প্রা’ণ হা’রান।