Categories
Uncategorized

প্রায় ২’শ বছর আ’গের এই মসজি’দে নামাজ আদা’য় করেন’ বাংলাদেশ-ভারতে’র না’গরিকরা।

রাষ্ট্র ভাগ হলেও ছি’ন্ন হ’য়নি স’ম্পর্ক। প্রায় ২’শ বছর আ’গে ব্রিটি’শ শাসন আমলে পূ’র্ব পুরুষে’রা তৈরি করেছিল একটি মসজিদ। ব্রিটিশ শাসক’রা চলে গেছে। ভাগ হয়েছে বাংলাদেশ-ভারত। কাঁ’টাতার দিয়ে ঘেরা হয়েছে সীমা’ন্ত। তবু সম্প্রীতির বন্ধন ভাগ হ’য়নি। একটি মসজিদকে ঘি’রেই মেলবন্ধন তৈরি হয়েছে বাংলাদেশ-ভারতের না’গরিকদের।

দেশ ভাগ হলেও কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী উপজেলার পাথরডুবি ইউনিয়নের বাঁ’শজানি ঝাকুয়াটারী গ্রামে অ’বস্থিত ম’সজিদটি এখনো ইতিহাসের স্বা’ক্ষী। ২০০ বছরের পুরাতন মসজিদটি’তে সী’মান্তের দুই পাড়ের মানুষ এক সাথে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করেন। দীর্ঘদিনের এই সম্প্রীতির বন্ধন এখনো অটুট রয়েছে।

কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- নারী ও-পুরুষের সকল প্রকার- জটিল ও গো’পন রোগের চিকিৎসা করা হয়। দেশে ও বিদেশে ওষুধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০ (সময় সকাল ৯ – রাত ১১ )

সীমা’ন্ত জুড়ে নানা অ’প্রীতিকর ঘ’টনার জন্ম হলেও এখানকার মানুষ আত্মীয়তা’র স’ম্পর্ক গড়ে এক অনন্য দৃ’ষ্টান্ত স্থা’পন করেছেন।
প্রায় ২শ’ বছরের পু’রনো হলেও অ’বকাঠামোগত কোনো উন্নতি হয়নি মসজিদটির। তবে, উদ্যোগ গ্রহণের কথা জানালেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি।

গ্রামটি আন্তর্জাতিক সী’মানা পি’লার দিয়ে ভাগ হলেও ভাগ হয়নি তাদের সমাজ। এই এলাকাটিতে বাংলাদেশের বাঁশজানি ঝাকুয়াটারী গ্রামে ৪৫টি পরিবারের তিন শতাধিক এবং ভারতের গাঁড়ালঝা’ড়া গ্রামে ৪৫টি পরিবারের প্রায় আড়াইশ মানুষের বসবাস। ১৫শতক জমির উপর অ’বস্থিত ম’সজিদটিই এখনও দুই বাংলার মেলবন্ধন হয়ে রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *