Categories
Uncategorized

আন্ডারওয়া’র্ল্ড ড’ন দা’উদ ইব্রাহি’ম করাচি’তে, পাকিস্তানের স্বী’কারোক্তি

বহু বছর ধরে অ’স্বীকার করে আসার পর এই প্রথমবারের মতো পাকিস্তান সরকার স্বীকা’র করেছে দেশটির করাচি শহরে বসবাস করেছে আ’ন্ডারওয়ার্ল্ড ডন দা’উদ ই’ব্রাহিম। সন্ত্রাসবা’দে সহায়তার অ’ভিযোগে ৮৮টি গোষ্ঠীর বি’রুদ্ধে পাকিস্তান সরকারের আরোপিত আর্থিক নি’ষেধাজ্ঞার তালিকায় রয়েছে এই আন্ডারওয়া’র্ল্ড ড’নের নাম। গতকাল শনিবার (২২ আগস্ট) পাকিস্তান সরকার এই তালিকা প্রকাশ করেছে।

ভারতের সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। ১৯৯৩ সালে ভারতের মুম্বাই হা’মলার প্রধান অ’ভিযুক্ত আ’সামী ছিলেন দা’উদ। প্যারিসভিত্তিক ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স (এফএটিএফ) ২০১৮ সালের জুন মাসে পাকিস্তানকে ধূসর তালিকাভুক্ত করে স’ন্ত্রাসবাদে সহায়তাকারী গোষ্ঠীগুলোর বি’রুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ইসলামাবাদ’কে সময় বেঁধে দেয়।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে ওই সময় সীমা শেষ হওয়ার কথা থাকলেও ক’রোনাভাইরাসের ম’হামারির কারণে পরে তার মেয়াদ বাড়ানো হয়। ওই সময়সীমা অনুযায়ী গত ১৮ আগস্ট পাকিস্তান সরকার দুটি নোটিশের মাধ্যমে জামাত উদ দাওয়া প্রধান হাফিজ সাইদ, জইশ-ই মোহাম্মদ প্রধান মাসুদ আজহার ও আন্ডারওয়া’র্ল্ড ডন দা’উদ ইব্রাহিমসহ বেশ কয়েক জনের ওপর আর্থিক নি’ষেধাজ্ঞা জারি করে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এই নি’ষেধাজ্ঞার মাধ্যমে এসব ব্যক্তি ও গোষ্ঠীর সম্পত্তি ও ব্যাংক হিসাব জ’ব্দ করবে পাকিস্তান। ১৯৯৩-এর মুম্বাই বি’স্ফোরণে দাউদ ইব্রাহিম’কে প্রধান অ’ভিযুক্ত হিসেবে মনে করে ভারত। ২০০৩ সালে তাকে বৈ’শ্বিক স’ন্ত্রাসী ঘোষণা করে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র। মুম্বাইয়ের ডাংরিতে জন্ম নেওয়া দা’উদ দীর্ঘদিন থেকে করাচিতে বসবাস করছেন বলে দাবি করে আসছে ভারত। তবে পাকিস্তান তা অ’স্বীকার করে আসছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *