Categories
Uncategorized

সৌদী আরব প্রবাসী মুস্তাক: ‘ইমাম মাহদী’ দাবিকারীর বিরুদ্ধে পুলিশের মামলা

নিজেকে ‘ইমাম মাহদী’ দাবিকারী সৌদী আরব প্রবাসী মুস্তাক মুহাম্মদ আরমান খানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলাটি দায়ের করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেররিজম বিভাগ (সিটিটিসি)। শনিবার (২২ আগস্ট) কাউন্টার টেররিজম বিভাগ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। সিটিটিসি সূত্র জানায়।

নিজেকে ইমাম মাহদী দাবিকারী মুস্তাক মুহাম্মদ আরমান খান দীর্ঘদিন ধরে ইউটিউব, ফেসবুকসহ বিভিন্ন অনলাইন প্ল্যাটফর্মে ইসলাম ধর্মের অপব্যাখামূলক, মনগড়া ও ভিত্তিহীন বক্তব্য প্রকাশ করে আসছিলেন। ‘তাকওয়া অনলাইন টিভি’ ও অন্যান্য ইউটিউব চ্যানেল এবং ‘মুস্তাক মুহাম্মদ আরমান খান’ নামীয় ফেসবুক আইডি থেকে অডিও-ভিডিও আকারে ওই বক্তব্যগুলো প্রকাশ করছিলেন।

এতে দেখা যায়, তিনি নিজেকে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)’র বংশধর হিসেবে দাবি করেন এবং স্বপ্নযোগে ইমাম মাহদী হিসেবে ঘোষিত হওয়ার বার্তা তিনি প্রাপ্ত হন। কাউন্টার টেররিজম বিভাগ জানায়, ইমাম মাহাদীর পরিচয় ধারন করে এ ধরনের অসত্য, বিভ্রান্তিকর বক্তব্য ও তথ্য উপাত্ত প্রদানের ফলে দেশের ধর্মপ্রাণ বৃহত্তর মুসলিম জনগোষ্ঠীর ধর্মীয় অনভুতিতে আঘাত প্রাপ্ত হওয়াসহ ব্যাপক বিভ্রান্তির সৃষ্টি হচ্ছে।

উক্ত ব্যক্তি তার প্রকাশিত ভিডিও বার্তায় বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রকাশের মাধ্যমে নিজেকে ইমাম মাহাদী দাবী করে তার কাছে কথিত ‘বায়াত’ গ্রহণের জন্য বৃহত্তর মুসলিম জনগোষ্ঠীর প্রতি আহ্বান জানায়।

সিটিটিসি সূত্রে আরও জানা যায়, সাম্প্রতিককালে তার এরূপ বক্তব্যে বিভ্রান্ত হয়ে বাংলাদেশ থেকে তার কাছে কথিত ‘বায়াত’ গ্রহণ করে ইমাম মাহাদীর সৈনিক হিসেবে কথিত জিহাদে অংশগ্রহণের উদ্দেশ্যে সৌদী আরব যাওয়ার আগে গত ৪ মে ১৭ জন এবং ৭ মে আরও দুইজনসহ মোট ১৯ জন পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়। তাদের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে রমনা থানায় সন্ত্রাস বিরোধী আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এই ধরনের বিভ্রান্তমূলক অপপ্রচার এবং দেশকে অস্থিতিশীল করার দায়ে ইমাম মাহদী দাবিকারী সৌদী প্রবাসী মুস্তাক মুহাম্মদ আরমান খানের বিরুদ্ধে আজ ২২ আগস্ট রমনা মডেল থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে বলেও জানিয়েছে পুলিশে কাউন্টার টেররিজম বিভাগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *