Categories
Uncategorized

নারীরা মি’লনের চেয়েও বেশি পছন্দ করে যে বিষয়গুলো!!

প্রেম-ভালোবাসার ক্ষেত্রে পুরুষদের কাছে যৌ-নতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। কিন্তু এমন কিছু বিষয় আছে যা নারীদের কাছে যৌ-নসুখের চাইতেও অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।
কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- নারী ও-পুরুষের সকল প্রকার- জটিল ও গোপন রোগের চিকিৎসা করা হয়। দেশে ও বিদেশে ওষুধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০ (সময় সকাল ৯ – রাত ১১ )

কেবল যৌ-ন সুখ নয়, নিজেদের একান্ত সম্পর্কে পছন্দের পুরুষের কাছ থেকে এই বিষয়গুলোও আশা করেন নারীরা।
কী করলে আপনার সঙ্গিনী খুশি হবেন, তারই কিছু সহজপাঠ এখানে দেয়া হলো। ব্যক্তি বিশেষে এই চাহিদার রকমফের হলেও দেখা গিয়েছে কমবেশি এই ব্যবহারই কামনা করেন অধিকাংশ নারী।

০১. যার মধ্যে প্রথমেই রয়েছে আলতো চু’ম্বন। জোর করে নয়, দুপ’ক্ষের সম্মতিতেই এই চু’ম্বন হওয়া বাঞ্ছ’নীয়।
২. দ্বিতীয়ত, স্প’র্শ। পোশাকি ভাষায় যাকে বলে গুড টাচ।০৩. গভীর আলি’ঙ্গন। যাতে থাকবে সারাজীবন পাশে থাকার ই’ঙ্গিত।
এই বিষয়গুলি নারীদের কাছে যৌ’নতার থেকেও অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।
০৪. যৌ-ন মিলনের পর গভীর আলি’ঙ্গনে পরস্পরকে জ’ড়িয়ে ঘুমোনোটাও অধিকাংশ না’রীই পছন্দ করেন।

০৫. একান্ত মুহূর্তে আবেগঘন প্রশংসা নারীদের খুবই প্রিয়। ০৬. পাশাপাশি হাত ধরে হাঁটা, উপহার, বিশেষ মুহূর্তে “ভালোবাসি” বলা, মজার খুনসুটি, মজার কোন ইঙ্গিত ইত্যাদি ব্যাপারগুলো নারীদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
মে’য়েদের শ’রী’রের ৬টি অং’শে কখনোই হা’ত দেবেন না মানুষের শরীর খুব সে’নসেটিভ৷ যখন তখন যত্রতত্র হাত দেওয়া সমীচিন নয়৷

বাড়ির বড়োরা একথা হা’মেশাই বলে থাকেন৷ কিন্তু এবার এই একই কথা বললেন ডাক্তাররা৷ জানালেন, নারী দেহের কয়েকটি অংশ কখনই যখন তখন হাত দিয়ে স্প’র্শ করা উচিত নয়
১) কান:- প্রায়শই মনের খেয়ালে আমরা কানে আ’ঙুল ঢু’কিয়ে কা’ন পরিষ্কার করি৷ আদতে কিন্তু কান তাতে নোং’রাই হয়৷ হাতে যা জীবাণু লেগে থাকে, তা সরাসরি কানে চলে যায়৷ তাই যতটা সম্ভব কান থেকে হাত দূরে রাখা উচিত৷

২) মুখ:- ব্রণর সমস্যা থাকলে কখনওই মুখ হাত দিয়ে ছোঁয়া উচিত নয়৷ এমনকী মুখ ধোয়ার আগেও স’তর্কতা অ’বলম্বন করা জরুরি৷ মুখ ধোয়ার আগে ভালো করে হাত ধুয়ে নিন৷ কারণ হাত থেকেই বেশিরভাগ সময় জী’বাণু ছ’ড়িয়ে পড়ে৷ তা থেকে রো’গ হওয়া অসম্ভব নয়৷
৩) নাক:- হাত নয়৷ নাক পরিষ্কার করার জন্য ব্যবহার করুন স্যানেটাইজড রুমাল৷ গবেষণা বলছে যারা নাক পরিষ্কার করার জন্য হাত ব্যবহার করে, তারা রো’গাক্রা’ন্ত হয় বেশি৷ তুলনায় যারা একটু সাবধানতা অবল’ম্বন করে, রু’মাল ব্যবহার করে, তারা অনেক বেশি সুস্থ থাকে৷

৪) চোখ:- সারাদিনে বেশ কয়েকবার আমাদের চোখ চুলকোয়৷ কাজের মধ্যে অ’জান্তেই আমরা হাত দিয়ে চোখ চুলকে নিই৷ ডাক্তাররা বলছেন এখান থেকে ছ’ড়িয়ে পড়তে পারে জী’বাণু৷ দেহের সবচেয়ে সেনসেটিভ অংশ চোখ৷ তাই এই অংশটিকে সাবধানে র’ক্ষা করা উচিত৷ বেশিরভাগ সময়ে চোখের ইনফেকশন হাত থেকেই ছ’ড়িয়ে পড়ে৷
৫) নখের নিচের ত্বক:- নখের নিচের ত্বকের চা’মড়া হয় খুব নরম৷ নখের নিচে সবচেয়ে বেশি নোং’রা জমে৷ তাই নি’য়মিত নখ প’রিষ্কার করা উচিত৷ নাহলে সেখান থেকে জীবাণু ছড়িয়ে পড়তে পারে নিচের চামড়ায়৷

৬) মুখ:- হাত নোংরা তো বটেই, হাত পরিষ্কার থাকলেও তা কখনই মুখের ভিতরে দেওয়া উচিত নয়৷ চিকিৎসকদের মত তেমনই৷ কারণ মুখের সাহায্যেই দেহের অভ্যন্তরে সবকিছু প্রবেশ করে৷ ফলে রোগের স’ম্ভবনা অমূলক নয়৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *