Categories
Uncategorized

জানেন ’ কো’রবানির মাংশ সংরক্ষণে’র সহজ উ’পায়।

এই কো’রবানি ঈদকে কেন্দ্র করে ঘরে ঘরে প্রচুর কাঁচা মাংস থাকবে। তাই প্রয়োজন সঠিক পদ্ধতিতে মাংস সংরক্ষণ করা, যাতে মাংস তাজা, স্বাস্থ্যকর ও ব্যাকটেরিয়ামুক্ত অবস্থায় খাওয়ার উপযোগী থাকে।

প্রথমেই খেয়াল রাখতে হবে কোরবানির মাংস বাসায় আসার পর খোলা অবস্থায় অনেকক্ষণ ফেলে না রেখে ৪-৫ ঘণ্টার মাঝেই তা সংরক্ষণ করতে হবে। তবে সেটা এমনভাবে করতে হবে, যেন এর স্বাদ ও পুষ্টিগুণ অক্ষুণ্ণ থাকে। অনেকেই চিন্তিত থাকেন কত দিন মাংস ফ্রিজে রাখা যায় সেটি নিয়ে।

মাংসের রক্ত ধুয়ে, ভালো মতো পানি ঝরিয়ে তারপর সংরক্ষণ করুন। এতে মাংস অনেকদিন ভালো থাকবে। ফ্রিজের তাপমাত্রা ১৮ থেকে ২২ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের মধ্যে রখুন। তাহলে মাংসে ব্যাকটেরিয়া ধরবে না। এতে করে গরুর মাংস ১২ মাস, খাসির মাংস ৬ মাস, মাথা, কলিজা ৬ মাস পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যায়।

মাংস বানানোর ৮-১০ ঘণ্টা পর মাংসে লবণ মেখে ১০০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রায় জ্বাল দিন। জ্বাল দেওয়া মাংস অবশ্যই ভালোভাবে ঠাণ্ডা হলে সংরক্ষণ করুন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ফ্রিজে রাখার সময় বড় চাকা মাংস না রেখে টুকরো করে রাখতে হবে। আবার একদম ছোট টুকরো করলে ভেতরে পানি জমে থাকে এবং ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে পারে। তাই ফ্রিজে মাংস রাখার আগে রক্ত, চর্বি, পানি পরিষ্কার করে ঝরিয়ে নিতে হবে।

প্রয়োজন অনুসারে ছোট ছোট প্যাকেট করে রাখলে মাংস বরফ হবে তাড়াতাড়ি আর মাংস বের করতেও সুবিধা হবে এছাড়া পুষ্টিগুণও নষ্ট হবে কম। তবে গোল করে চেপে প্যাকেট না করে বিছিয়ে প্যাকেট করলে তাড়াতাড়ি বরফ হয়ে বেশি দিন ভালো থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *