Categories
Uncategorized

গুরুদুয়ারাকে মসজিদ বানাচ্ছে পাকিস্তান! তবে কি বাবরি মসজিদের বদলা?

গত বছরের নভেম্বরে ভারতের অযোধ্যায় বাবরি মসজিদের জমিতে রামমন্দির নির্মাণ সুপ্রিম কোর্টের মাধ্যমে বিত’র্কের অব’সান হয়েছিল। অবশেষে ওই জমি হিন্দুদের বলেই রায় দেয় সুপ্রিম কোর্ট। অন্যত্র পাঁচ একর জমিতে মসজিদ তৈরি হবে বলে জানায় সর্বোচ্চ আদালত। এর পরেই অযোধ্যায় মন্দির তৈরির উদ্যোগ শুরু হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সে সময় এই ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছিল পাকিস্তান। এবার আগস্টের প্রথম সপ্তাহে অযোধ্যায় ভূমিপূজার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। ৩ আগস্ট থেকে ৫ আগস্ট হবে সেই উৎসব। রামমন্দিরের ভূমিপূজার ঘোষণার পরপরই পাকিস্তান থেকে আরেক ঘোষণা আসে। দীর্ঘদিনের পরানের ঐতিহাসিক গুরুদুয়ারা নানক শাহি মসজিদে রূপান্তরের ঘোষণা।

পাকিস্তানের লাহোরের ঐতিহাসিক গুরুদুয়ারা নানক শাহি মসজিদে রূপান্তর করার পদক্ষেপের প্র’তিবা’দ জানিয়েছে ভারত। সোমবার পাকিস্তান হাইকমিশনে এ প্রতিবা’দ জানায় দিল্লি। কেউ কেউ এই ঘ’টনাকে অযোধ্যায় বাবরি মসজিদ ও রাম মন্দির বির্ত’কের সাথে যোগ দেখছে। তবে ভারত এই ঘ’টনার প্রতিবা’দ জানিয়েছে।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব এক বিবৃতিতে বলেছেন, লাহোরের নওলাখা বাজারে ভাই তারু সিং জির শাহাদাত স্থান গুরুদুয়ার শহীদী আস্তানাকে মসজিদ শহীদ গঞ্জের জায়গা হিসেবে দাবি করা হয়েছে এবং এটিকে মসজিদে রূপান্তর করার পদক্ষেপে পাকিস্তানি হাইকমিশনে ক’ড়া প্রতিবা’দ জানানো হয়েছে।

মুখপাত্র বলেন, গুরুদুয়ার শহীদী আস্তান ভাই তারু জি একটি ঐতিহাসিক স্থান, যেখানে ভাই তারু জি ১৭৪৫ সালে সর্বোচ্চ ত্যা’গ স্বী’কার করেছিলেন। এটিকে শিখ ধর্মের লোকেরা শ্রদ্ধার ও পবিত্র স্থান হিসেবে বিবেচিত করে।

এই ঘ’টনাটিকে ভারত গু’রুতর উদ্বে’গের সঙ্গে দেখছে। পাকিস্তানে সংখ্যালঘু শিখ ধর্মের লোকদের প্রতি ন্যায় বিচারের জন্য আহ্বান জানিয়েছে ভারত। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া, হিন্দুস্তান টাইমস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *