Categories
Uncategorized

ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ভুলের মাশুল গুনছেন আমির

পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ আমিরের ক্যারিয়ারের প্রথম ভুলের কথা তো সবার জানা। ২০০৯ সালে স্পট ফিক্সিং করে পাঁচ বছর ছিলেন খেলার বাইরে। ২০১৫ সালে খেলায় ফিরে করেন আরেক ভুল। পাঁচ বছর সব ধরনের ক্রিকেট থেকে দূরে থাকার পর ফিরেই বোলিং করেছেন প্রচুর।

আরো পড়ুন : চা’চির সঙ্গে ভাতিজার প্রে’ম, বিয়ে করে ভ’য়ঙ্ক’র পরি’ণতি!

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তিন সংস্করণেই খেলেছেন। শরীর সামলাতে পারেনি সেই ধকল। এরপর গত জুলাই মাসে মাত্র ২৮ বছর বয়সে এসে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন আমির। দুর্দান্ত দক্ষতাসম্পন্ন এই বাঁহাতি পেসারের টেস্ট ক্যারিয়ার থামে মাত্র ৩৬ টেস্ট ও ১১৯ উইকেটে।

আরো পড়ুন : মেয়েদের উ’ত্তে জিত করার স’হজ উ’পায়

কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- নারী ও-পুরুষের সকল প্রকার- জটিল ও গোপন রোগের চিকিৎসা করা হয়। দেশে ও বিদেশে ওষুধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০ (সময় সকাল ৯ – রাত ১১ )

তবে আমির নিজের ভুল তরুণদের করতে বারণ করেছেন। লম্বা বিরতির পর বুঝেশুনে বোলিংয়ে ফেরার পরামর্শ তাঁর। পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেছেন, ‘আমি অনেক বড় ভুল করেছি, ফিরেই খেলেছি তিন সংস্করণের ক্রিকেট। ভবিষ্যত ক্রিকেটারদের এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকতে বলব। সবার নিজের সামর্থ্য মাথায় রাখা উচিত। নিজেকে বোলিংয়ের ছন্দে আনতে এক অথবা দুই সংস্করণের ক্রিকেট খেলা উচিত। এরপর যদি বিশ্বাস করে যে আরেক সংস্করণ খেলা সম্ভব এখন, তাহলেই তিন সংস্করণে খেলা উচিত।’

ক্রিকেটের ফেরার পরের এক বছরে বিশ্বের সব বোলারের তুলনায় বেশি বল করেছিলেন আমির। অতি বোলিংয়ের চাপ শেষ পর্যন্ত সইতে পারেনি আমিরের শরীর। কমে এসেছে গতি। কমেছে সুইংয়ের ধার। এরপর ২০১৮ সালে আসে চোটের ধাক্কা। এক বছর পর নিজের ক্যারিয়ার বাঁচাতে বাধ্য হয়ে ছাড়েন টেস্ট ক্রিকেট।

টেস্ট ছাড়ায় সাদা বলের ক্রিকেটে পাকিস্তানকে আরও ৫-৬ বছর সময় দিতে পারবেন বলে বিশ্বাস আমিরের, ‘পেসারদের সতর্ক হতে হবে। ফেরার পর সব সংস্করণে খেলার কারণে আমার সমস্যা দেখা দেয়। ২০১৮ সালে চোটে পড়ি। এরপর সেই মৌসুমে সাদা বলের ক্রিকেট খেলিনি। আশা করছি আমার ক্যারিয়ার আরও ৫-৬ বছর দীর্ঘ হবে।’

২৮ বছর বয়সী এই বাঁহাতি পেসার সম্প্রতি ইংল্যান্ডে অবস্থানরত পাকিস্তান দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। ইংল্যান্ডে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার কথা পাকিস্তানের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *