চিকিৎসক সাবরিনা ব’রখাস্ত, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ডিজিকে শো’কজ

জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের চিকিৎসক সাবরিনা আরিফ চৌধুরীকে সাময়িক ব’রখাস্ত করা হয়েছে। সরকারী চাকরি করে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত থাকা এবং অর্থ আ’ত্মসাতের মতো শা’স্তিযোগ্য অ’পরাধে অ’ভিযুক্ত হওয়ায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় তাঁকে ব’রখাস্তের সিদ্ধান্ত নেয়। স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব আবদুল মান্নান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। সাবরিনা ব’রখাস্তের বিষয়টি আজ রবিবার (১২ জুলাই) থেকেই কার্যকর হবে।

এদিকে রিজেন্ট হাসপাতালের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এই চিঠির বিষয়ে ব্যাখ্যা জানতে চেয়েছে অধিদপ্তরের মহাপরিচালকে শো’কজ করা হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতর কর্মকর্তা বলতে কী বোঝানো হয়েছে এবং রিজেন্টের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরের আগে কী কী বিষয় বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে তা জানাতে বলা হয়েছে।

চিকিৎসক সাবরিনাকে ব’রখাস্তের কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, তিনি সরকারী চাকুরে হওয়া সত্ত্বেও অনুমতি না নিয়েই বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের (জেকেজি) চেয়ারম্যান পদে ছিলেন। তা ছাড়া করোনা পরীক্ষার ভুয়া সনদ দিয়ে অর্থ আ’ত্মসাতের সঙ্গেও তিনি জড়িত বলে অ’ভিযোগ রয়েছে। সরকারী কর্মচারি বিধিমালা অনুযায়ী এগুলো শা’স্তিযোগ্য অপরাধ। এসব কারণে তাঁকে সাময়িক ব’রখাস্ত করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*