ভারত আমাদের কাছে ক্ষ’মা চাইতে বা’ধ্য হ’তো: আফ্রিদি

এক সময় নিয়মিতই সিরিজ খেলত চির প্র’তিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তানের। রাজনৈতিক টানাপোড়নে তাতে দেখা দিয়েছে বি’পত্তি। পুরনো সে সময়ের কথা মনে করে এক বি’স্ফোরক মন্তব্য করেছেন পাকিস্তানের কিংবদন্তী অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি। তিনি দাবি করেছেন যে, ভারতীয়রা এসে নাকি পাকিস্তানিদের কাছে ক্ষ’মা চাইতে বা’ধ্য হ’তো!

পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক আফ্রিদির মতে, ভারতকে নাকি তারা এতই হা’রাতেন যে খেলা শেষে ভারতীয় ক্রিকেটাররা এসে ক্ষ’মা চাইতেন। যদিও পরিসংখ্যান বলছে মোটেও এক তরফা ছিল না ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেট লড়াই। সম্প্রতি ক’রোনাভাইরাসে আ’ক্রান্ত হয়েছিল সাবেক এই বি’ধ্বংসী ব্যাটসম্যান। সেরে উঠে বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) এক ইউটিউব চ্যানেলে উস্কে দিয়েছেন নতুন বিতর্ক, ‘ভারতের বিপক্ষে খেলা আমি বরাবরই উপভোগ করেছি।

আমরা ওদের এত নিয়মিত হা’রাতাম যে ম্যাচ শেষে তারা আমাদের কাছে মাফ চাইত।’ ১৯৯৬ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক আফ্রিদির। পাকিস্তানের হয়ে খেলেছেন ২০১৮ পর্যন্ত। তার দীর্ঘ ২২ বছরের ক্যারিয়ার চলাকালীন তিন সংস্করণে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি হয়েছে ১০২ বার। এরমধ্যে দুদলের জয়ই সমান ৪৭টি করে। আইসিসি বিশ্বকাপের হিসাব নিলে আফ্রিদির কথার বরং উলটো অবস্থা।

কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- নারী ও-পুরুষের সকল প্রকার- জটিল ও গোপন রোগের চিকিৎসা করা হয়। দেশে ও বিদেশে ওষুধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০ (সময় সকাল ৯ – রাত ১১ )

এখনো পর্যন্ত বিশ্বকাপের কোন ম্যাচে ভারতকে হা’রাতে পারেনি পাকিস্তান। ভারতের বিপক্ষে আইসিসির কোন ইভেন্টে পাকিস্তানের একমাত্র জয় ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে। খোঁচা মেরে মন্তব্যের পর অবশ্য ভারতের বিপক্ষে খেলার চাপের কথাও স্বীকার করেছেন তিনি, ‘ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার মতো দলের বিপক্ষে খেলা সময় সময়ই উপভোগ্য। কারণ ওরা ভাল দল, বড় দল তাই চাপ বেশি থাকে। ওদের কন্ডিশনে গিয়ে পারফর্ম করা অনেক বড় ব্যাপার।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*