Categories
Uncategorized

ট্রাম্পের বিরু’দ্ধে গ্রে’ফতারি পরোয়ানা জারি করল ইরান

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরু’দ্ধে গ্রেফ’তারি পরোয়ানা জারি করল ইরান। কাসিম সোলেমানিকে হ’ত্যার দায়ের গ্রেফ’তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। এই বিষয়ে ইন্টারপোলের সাহায্যও চেয়েছে ইরান। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উ’ত্তেজনা।গত জানুয়ারিতে বাগদাদ ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে ড্রোন হাম’লায় ইরানের জেনারেল কাসিম সোলেমানির মৃ’ত্যু হয়। তারপর থেকেই আমেরিকার বি’রুদ্ধে ইরানের ক্ষো’ভ তুঙ্গে। আর এবার গ্রেফ’তারি পরোয়ানা জারি খোদ মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিরু’দ্ধে।

ইরানের সংবাদ মাধ্যম আই এস এন এ নিউজ এজেন্সির রিপোর্ট অনুযায়ী, ইরানের সরকারি আইনজীবী আলী আকাসিমেহর জানিয়েছেন যে ডোনাল্ড ট্রাম্প সহ ৩০ জনের বিরু’দ্ধে গ্রেফ’তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। গত ৩ জানুয়ারি যে ড্রোন অ্যা’টাক হয়েছিল তার জেরেই এই পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরু’দ্ধে হ’ত্যা ও স’ন্ত্রা’সবাদের মাম’লা করেছে ইরান। ট্রাম্প ছাড়া ওই তালিকায় আর কার নাম রয়েছে তা উল্লেখ করেনি তেহরানের সরকারি আইনজীবী।

তবে তিনি জানিয়েছেন যে ট্রাম্পের প্রেসিডেন্ট পদে থাকার মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও এই মা’মলা চলবে। তবে ইন্টারপোল এই বিষয়ে কি করবে তা এখনো জানা যায়নি। তেহরানের সরকারি আইনজীবী জানিয়েছেন দেবার জন্য ইন্টারপোলের কাছে আবেদন জানিয়েছে ইরান। রেড নোটিশ হলো ইন্টারপোলের দেওয়া সর্বোচ্চ নোটিশ। সাধারণত এই রেড নোটিশ দেওয়া হলে কোন দেশের তরফ থেকে স্থানীয় প্রশাসনিক গ্রে’ফতার করে অভিযুক্তকে।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনির পর দেশটির সবচেয়ে ক্ষমতাধর ব্যক্তি ছিলেন মেজর জেনারেল কাসেম সোলেমানি। তিনি ছিলেন বিপ্লবী গার্ডস বাহিনীর এলিট ইউনিট কুদস ফোর্সের প্রধান। বলা হচ্ছে, দেশের বাইরে ইরানের সামরিক ও রা’জনৈতিক প্রভাব বিস্তারের চেষ্টায় সোলেমানি ছিলেন মূল ব্যক্তি। সাম্প্র’তিক বছরগুলোতে ইরানের বিদেশনীতি নির্ধারণেও তার ভূমিকা ছিল।

গত দুই দশক ধরে ইরাক, ইয়েমেন, সিরিয়া ও লেবাননের মত দেশে শিয়া মিলিশিয়া গোষ্ঠীগুলোর শক্তিশালী হয়ে ওঠার পেছনে তিনিই ছিলেন প্রধান রূপকার। এর মোকাবেলায় তেহরানের আঞ্চলিক শত্রু সৌদি আরব, ইসরায়েল এবং যুক্তরাষ্ট্রকে বেগ পেতে হয়েছে। ফলে বহুদিন ধরেই তিনি ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েলের ‘টার্গেট’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *