Categories
Uncategorized

শরীর ঘেঁষে হাঁচি দেয়ায় পি’স্তল নিয়ে তেড়ে এলেন এমপির দেহরক্ষী

ম’হামারি করোনা ভাইরাসের কারণে হাঁচি কাশি দেয়ার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যগত সতর্কতা মেনের চলার আহবান জানাচ্ছেন স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীরা। এ কারণে রাস্তাঘাটে কেউ হাঁচি কাশি দিলে সাধারণ মানুষ অন্যরকম ভাবেই বিষয়টিকে নজর দিচ্ছে। তবে এবার ঘটল ভিন্ন ঘটনা। শরীরের কাছে হাঁচি দেয়ায় দলীয় কর্মীর দিকে পিস্তল তাক করেছেন পশ্চিমবঙ্গের কোলকাতার উত্তর দমদমের বাম দলীয় এমপি তন্ময় ভট্টাচার্যের দেহরক্ষী।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) বিকালে পশ্চিমবঙ্গের আমডাঙার ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের সামনে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও স্থানীয়দের বরাত দিয়ে কলকাতাল আনন্দ বাজার পত্রিকা জানায়, আম্পানে ক্ষতিপূরণের কাজে দুর্নীতির অভিযোগ এনে দলের পক্ষ থেকে আমডাঙা থানা ও বিডিও অফিসে স্মারকলিপি দিতে আসেন বিধায়ক তন্ময় ভট্টাচার্য। কর্মসূচি শেষে গাড়িতে ওঠার সময় গোলমালের সূত্রপাত ঘটে।

খবরে বলা হয়, সিপিএমের বিধায়ক তন্ময় গাড়িতে ওঠার সময় ভিড়ের মধ্যে বামফ্রন্টের এক কর্মী হঠাৎ হাঁচি দেন। কর্মীদের একাংশের অভিযোগ, সে সময় দেহরক্ষী ওই কর্মীকে ধাক্কা দিয়ে বলেন, গায়ের উপরে হাঁচছেন কেন? এর পরেই শুরু হয় গোলমাল। ওই কর্মীর গায়ে হাত তোলার প্রতিবাদ করে দেহরক্ষীকে ধাক্কা দিতে থাকেন উপস্থিত নেতা-কর্মীরা।

এ সময় আমডাঙা ব্লক অফিসের সামনে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের যানবহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। গোলমালের সময় বিধায়কের দেহরক্ষী, সাদা পোশাকের পুলিশকর্মীর কোমর থেকে পিস্তল বের করে বিক্ষোভকারীদের দিকে তাক করে গুলি করার হুমকি দেন। তবে বিধায়ক তন্ময় ও পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *