Categories
Uncategorized

আকাশসীমায় যু’দ্ধবিমান মোতায়েন, পাকিস্তান-চীনকে একসাথে প্রতিহত করবে ভারত!

উত্তর সিকিমে চীন ও ভারত সে’নাদের মধ্যে চলা উ’ত্তেজনার মধ্যেই লাদাখে সী’মান্তের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার (এলএসি) খুব কাছে চীনা সা’মরিক হেলিকপ্টার চলে আসে। এর পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে যু’দ্ধ বিমান মোতায়েন করেছে ভারত। মঙ্গলবার (১২ মে) ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম বলা হয়, লাদাখ সী’মান্তের খুব কাছে চীনা হেলিকপ্টার দেখতে পেয়ে ভারতের যু’দ্ধবিমান তাদের তাড়া দেয়। অন্যদিকে পাকিস্তানও ভারত সী’মান্তে সে’নাসজ্জা করছে। ভারত একই সাথে পাকিস্তান ও চীনের আ’ক্রমণ প্রতিহত করার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

ভা’রত-চীন সীমান্তে যু’দ্ধ পরিস্থিতি, আকাশে ফাইটার হেলিকপ্টার ভা’রত-চীন সীমান্তে উত্তে’জনা বাড়ছে। সীমান্তের খুব কাছে চীনা সে’নাবাহিনী অর্থাৎ পিপলস লিবারেশন আর্মির একটা হেলিকপ্টারকে উড়তে দেখা গিয়েছে। মাটির খুব নীচ দিয়ে এই হেলিকপ্টারের উপস্থিতি ভা’রতের উদ্বেগ বাড়িয়েছে। যদিও চীনা ভূপৃষ্টে সেই কপ্টারের উপস্থিতি ছিল। কিন্তু ঝুঁ’কি এড়াতে ভা’রতীয় বায়ু সে’নার একটা কপ্টারকে এ সময় উড়ানো হয়।

এনডিটিভি সে’না সূত্রে জানায়, চীনা কপ্টারের ওপর নজরদারি করতে এই উদ্যোগ। দুই দেশের বায়ুসে’নার ওই বিমান সীমা লঙ্ঘন করেনি। দু’টি কপ্টারই নিজেদের ভূপৃষ্টের ওপর ছিল। এ প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, লাদাখের এলএসি বরাবর এই অঞ্চলে গত সপ্তাহে দুই দেশের পদাতিক বাহিনীর সক্রিয়তা ঘিরে উত্তে’জনা বেড়েছিল।

যদিও বেশ কয়েক মাস পর এভাবে ভা’রত-চীন সীমান্তে ফের উত্তে’জনা বাড়ল, জানিয়েছে মন্ত্রণালয়। এ বিষয়ে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় বলে, এলএসিতে পিএলএ শান্তি-স্থিতি বজায়ে কাজ করে। দুই দেশের উচিত দ্বিপাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমে সীমান্ত সমস্যা সমাধান করা। আম’রা সবসময় ভা’রতীয় সে’নার সঙ্গে সমন্বয় রেখেই সীমান্ত ব্যবস্থা মজবুত রাখি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *