Categories
Uncategorized

করোনায় গ্রাস হয়েছে ভারত, রেকর্ড পরিমাণ মৃত্যু

ভারতে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ কমার তো কোনও লক্ষণই নেই, বরং দিনে দিনে সেই সংখ্যা বেড়েই চলেছে। যার শিকার দেশটির প্রায় সাড়ে ৩ লাখ মানুষ। থেমে নেই প্রাণহানিও। মৃতের হারে ভারত এখন আট নম্বরে। করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু রেকর্ড গড়েছে ভারত। সোমবার (১৫ জুন) প্রাণ গেছে ৩৯৫ জনের। ২৪ ঘণ্টায় নতুন সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ১০ হাজারের বেশি। ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে তিন লাখের কাছাকাছি।

দেশটির কেন্দ্রিয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ হাজার ৬৬৭ জনের দেহে মিলেছে করোনার সংক্রমণ। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৪৩ হাজার ৯১ জনে দাঁড়িয়েছে। এর মধ্যে মহারাষ্ট্রে আক্রান্ত লাখের ঘরে ঢুকে পড়েছে আগেই। তামিলনাড়ু ও দিল্লি পাল্লা দিয়ে ছুটছে ৫০ হাজারের দিকে। আক্রান্তের পাশাপাশি প্রাণহানির সংখ্যাও উদ্বেগ বাড়াচ্ছে। মোট মৃত্যুর নিরিখে বেলজিয়ামকে টপকে বিশ্বের অষ্টম স্থানে এখন ভারত।

গত একদিনে সেখানে করোনার থাবায় ৩৮০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এতে প্রাণহানি বেড়ে ৯ হাজার ৯১৫ জনে জনে ঠেকেছে। এর মধ্যে মহারাষ্ট্রেই মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ১২৮ জনের। গুজরাটে ১ হাজার ৫০৫ জনের। রাজধানী দিল্লিতেও মৃত্যু সংখ্যা ধারাবাহিক ভাবে বাড়ছে। সেখানে ১ হাজার ৪০০ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা। পাঁচশোর গণ্ডি না পেরিয়েও মৃত্যুতে দেশের চতুর্থ স্থানে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ।

এ রাজ্যে মোট মৃত ৪৮৫ জন। এরপর তালিকায় রয়েছে তামিলনাড়ু (৪৭৯), মধ্যপ্রদেশ (৪৬৫), উত্তরপ্রদেশ (৩৯৯), রাজস্থান (৩০১), তেলঙ্গানা (১৮৭) ও হরিয়ানা (১০০)। এদিকে সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি মহারাষ্ট্র-দিল্লিতে। পরিস্থিতির ক্রমশ অবনতিতে আবারও বিধিনিষেধ কঠোর করছে তামিলনাড়ু, পাঞ্জাব, কেরালা, ঝাড়খান্ডসহ অনেক রাজ্য। প্রতিবেশি পাকিস্তানে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ২৭শ’ ছাড়িয়েছে। আক্রান্ত হয়েছে দেড় লাখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *