Categories
Uncategorized

৪৮ ঘণ্টায় ৩ শীর্ষ নেতা হারালো আ.লীগ, হাসপাতালে আরও ২ মন্ত্রী

নভেল করোনা ভাই’রাসে আ’ক্রান্ত হয়ে গত ৪৮ ঘণ্টার ব্যবধানে আওয়ামী লীগের তিন প্রভাবশালী নেতার মৃ’ত্যু হলো। ফলে দলটির নেতাকর্মীদের মাঝে এখন শোকের আবহ বিরাজ করছেন। টানা ৮ দিন লাইফ সাপোর্টে থাকার পর গতকাল শনিবার বেলা ১১টা ১০ মিনিটের দিকে রাজধানীর শ্যামলীর বাংলাদেশ স্পেশাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশ্ব’স্ত সহযো’দ্ধা ও দেশপ্রেমিক রাজনীতিক মোহাম্মদ নাসিম।

মৃ’ত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭২ বছর। স্ত্রী ও তিন সন্তান রেখে গেছেন। ওইদিনই রাত পৌনে ১২টার দিকে মা’রা যান ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ। আর সবশেষ সোমবার ভোরে না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন তিন দশকেরও বেশি সময় সিলেটের রাজনীতির মাঠ কাঁপানো সাবেক নগর পিতা ও আওয়ামী লীগ নেতা বদর উদ্দিন আহমদ কামরান।

এদিকে নভেল করোনা ভাই’রাসে আ’ক্রান্ত হয়ে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন আছেন মুক্তিযু’দ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক ও তার স্ত্রী লায়লা আরজুমান্দ বানু এবং পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং। উশৈসিংয়ের শারী’রিক অবস্থা সম্পর্কে তার মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা নাছির উদ্দিন জানিয়েছেন, মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং আগের চেয়ে ভালো আছেন। তার শারী’রিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে।

এদিকে মুক্তিযু’দ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা সুফি আব্দুল্লাহিল মারুফ জানিয়েছেন, মুক্তিযু’দ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক ও তার স্ত্রী লায়লা আরজুমান্দ বানু স্ট্যাবল আছেন। সার্বক্ষণিক শারী’রিক অবস্থা পর্যবেক্ষণের সুবিধার্থেই উনারা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এর আগে গেল ১২ জুন মুক্তিযু’দ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক ও তার স্ত্রীর নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ আসে। ১৪ জুন দুজনেই হাসপাতালে ভর্তি হন। গত ৬ জুন করোনা শনাক্তের পর ৭ জুন বান্দরবান সেনা জোন থেকে সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টারে সিএমএইচে নিয়ে আসা হয় মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিংকে।

গত ৭ জুন রাত সাড়ে ১১টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হৃদয’ন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তিচুক্তি বাস্তবায়ন ও পরিবীক্ষণ কমিটির আহ্বায়ক ও বরিশাল-১ আসনের সংসদ সদস্য আবুল হাসানাত আবদুল্লাহর স্ত্রী, বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদেক আবদুল্লাহর মা বীর মুক্তিযো’দ্ধা সাহান আরা বেগম। মৃ’ত্যুকালে ১৫ আগস্টের কালরাতের প্রত্যক্ষদর্শী সাহান আরা বেগমের বয়স হয়েছিল ৭২ বছর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *