Categories
Uncategorized

পাপুলকে নিয়ে কঠোর অবস্থানে কুয়েত সরকার

অর্থপাচার ও মানবপাচারের অভিযোগে গ্রেপ্তার বাংলাদেশি সংসদ সদস্য কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের বিষয়ে কঠোর অবস্থান নিয়েছে কুয়েত সরকার। গ্রেপ্তারের পর থেকে তাকে টানা আট দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে কুয়েতের পাবলিক প্রসিকিউশন বিভাগ। পাপুলকে গ্রেপ্তারের পর তদন্ত চলার মধ্যে এটিকে ‘সবচেয়ে বড়’ মানবপাচারের ঘটনা হিসাবে বর্ণনা করেছেন কুয়েতের উপ-প্রধানমন্ত্রী আনাস আল-সালেহ।

গতকাল রোববার (১৪ জুন) আরব টাইমসের প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে। তবে এ বিষয়ে এখনও কিছু স্পষ্ট করেননি তিনি। এ ঘটনায় সরকারি কর্মকর্তা ও প্রভাবশালী- যেই হোক না কেন তাদের বিচারের আওতায় আনার হুঁশিয়ারি দেন সালেহ। বাংলাদেশি এমপি’র সঙ্গে কুয়েতের যারা জড়িত, তাদেরও নাম প্রকাশের দাবি জানিয়েছেন দেশটির সংসদ সদস্য আবদুল করিম আল-কানদারি। গত ৬ জুন গ্রেপ্তার হন লক্ষ্মীপুর-২ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য পাপুল। পরে তাকে আট দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে কুয়েতের পাবলিক প্রসিকিউশন বিভাগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *