Categories
Uncategorized

নিজ এলাকায় স্কুল বানানোর পর মসজিদ, মাদরাসা ও কবরস্থানের জন্যও জমি দেন মোহাম্মদ রফিক

অনেক আগের একটা কথা প্রচলিত আছে, সরকারের কাছ থেকে উপহার পাওয়া জমি স্কুল বানানোর জন্য দিয়ে দিয়েছেন মোহাম্মদ রফিক। পরে নিজেই এ কথার সতত্য নিশ্চিত করেন দেশের কিংবদন্তী এ স্পিনার। এবার আরও অনেক তথ্য জানালেন নিজ গ্রামের উন্নয়ন নিয়ে।
সহজ সরল প্রকৃতির এই মানুষটি সবারই কাছে একটি প্রিয় মুখ। রাজধানীর কেরানীগঞ্জে এখনো মানুষের সেবা করে চলে আসছেন মোহাম্মদ রফিক।

দেড়শ শতাংশ জায়গায় মসজিদ কবরস্থান এবং মাদ্রাসা বানিয়ে দিয়েছেন রফিক। ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েব পোর্টাল ক্রিকটাইমের নিয়মিত লাইভে হাজির হয়ে এ কথা বলেন রফিক নিজেই। রফিক জানান, মানুষের জন্য নতুন করে অনেক কিছুই করেছি। কিছুদিন আগে আমার এক সহযোগী সাথে দেড়শ শতাংশ জায়গায় কবরস্থান, মসজিদ এবং মাদরাসা বানিয়ে দিয়েছি। আমার নিজস্ব জায়গার উপর। এটা কেরানীগঞ্জের সবচেয়ে দামি জমির এলাকা।

কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- নারী ও-পুরুষের সকল প্রকার- জটিল ও গোপন রোগের চিকিৎসা করা হয়। দেশে ও বিদেশে ওষুধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০ (সময় সকাল ৯ – রাত ১১ )

আরও কিছু জায়গা আছে, এর মধ্যে দশ শতাংশ জায়গা মসজিদ বানানোর জন্য রেখেছি। আরও দশ শতাংশ জায়গা রেখেছি, ওখানে স্কুল বানিয়ে দিব। নিজ এলাকায় এতো উন্নয়ন করা লোকটা ক্রিকেটের জন্যও কিছু করতে চান। তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড তাকে সেরকম পদ দিতে না পারায় ক্রিকেটকে পরিচর্যা করতে পারছেন না এ লিভিং লিজেন্ড। যা নিয়ে একটা চাপা ক্ষোভ আছে তার মনে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *