Categories
Uncategorized

সাব্বিরের আরেক কেলেঙ্কারি; মুখ খুললেন

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতাকর্মীর গায়ে হাত তোলার অভিযোগ উঠেছিল ক্রিকেটার সাব্বির রহমান রোমানের বিরুদ্ধে। তবে সাব্বির জানালেন, ওই পরিচ্ছন্নতাকর্মীর সঙ্গে ‘বাগবিতণ্ডা’য় জড়ালেও গায়ে হাত তোলার কোনো ঘটনা ঘটেনি। উল্টো ওই পরিচ্ছন্নতাকর্মীই তাকে ‘চোখ রাঙিয়েছেন’।

সাব্বির বলেন, ‘ওর নাম হচ্ছে বাদশা। ওকে আমি প্রতিবারই ডেকে ডেকে ত্রাণ দেই। এবারও করোনার মধ্যে ১০-১৫ হাজার টাকা দিয়েছি। আজ বিকেলে আমি আমার স্ত্রীকে নিয়ে বাইরে থেকে বাসায় ফিরছি। দেখি বাসার গেটের সামনে ময়লার ভ্যান। আমি বাসায় ঢুকতে পারছি না। সে আরেকজনের সঙ্গে গল্প করছিল। আমি বারবার হর্ন দিচ্ছি। এক পর্যায়ে সে আমার গাড়ির সামনে এসে আমাকে চোখ রাঙানি দেয়।’

তিনি যোগ করেন , আমি গাড়িটা একপাশে পার্ক করে জিজ্ঞাসা করলাম, ভাই কিছু বললেন নাকি? সে বলে, আমি তো আমার কাজ করছি। আপনি এত হর্ন দিচ্ছেন কেন? আমি বললাম, আপনি যে এভাবে পথ আটকিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন, কেউ অসুস্থ হলে বা মারা গেলে কী হবে? সে আমাকে ঝারি দিয়ে বলে, মারা যাবে কেন? স্রেফ এই কথাগুলোই জোরে জোরে বলেছি। অথচ মানুষ বলছে আমি নাকি ওনার গায়ে হাত তুলেছি!

সাব্বিরের সাফ কথা, ‘ওর গায়ে হাত তোলার কোনো প্রয়োজনই আমার নেই। আমি কেন ওকে মারতে যাব? এর আগে যেসব অন্যায় করেছি, সেখান থেকে নিজেকে শুধরে নিয়েছি। আমার ক্যারিয়ার আছে। অতএব ওর গায়ে হাত তোলার প্রশ্নই উঠে না।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *